• আজ ১১ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

পানির চাহিদা পূরণ করবে শাক-সবজি

১২:০৮ অপরাহ্ণ | রবিবার, জুন ১৯, ২০১৬ আপনার স্বাস্থ্য

স্বাস্থ্য ডেস্ক:


vegetable

গরমে খাবার নিয়ে একটু হেরফের হলেই এত্তগুলো সমস্যা এসে হাজির। কারো পেটে সমস্যা, কারো বা চামড়া হয়ে যায় খসখসে। এসবের আড়ালে কলকাঠি নাড়ায় পানি। গরমে পানির ঘাটতিটাই যত নষ্টের গোড়া। আর সেই ঘাটতি পূরণে কাজের কাজি হতে পারে পরিচিত কিছু শাক লতাপাতা।

লাউ

লাউ আমারা কে না চিনি। এই সবজিটার ৯০ ভাগই পানি। ক্যালরি কম থাকা লাউ পানির ঘাটতি পূরণে যুৎসবই সবজি। পুষ্টিবিদরা জানালেন, একশ গ্রাম লাউতে আছে মাত্র ১৫ কিলোক্যালরি। আর তাই ইচ্ছেমতো খেলেও বাড়বে না চর্বি।

সবুজ শাক

কলমি, পুঁই ও পালং শাকে প্রচুর পানি আছে। তাই নিয়ম করে বোতল বোতল পানি গিলতে না চাইলে এ শাকগুলো খান পেট ভরে। সঙ্গে উপরি পাওনা হিসেবে পাবেন আয়রন ও মাইক্রো-মিনারেল। এ ধরনের শাকে প্রতি ১০০ গ্রামে আছে ২৪ কিলোক্যালরি। আঁশও আছে প্রচুর। আর চর্বি থাকতে পারে বড়জোর দশমিক ২ শতাংশ। ওজন কমাতে ইচ্ছুকদের জন্য এ শাকগুলো আদর্শ।

চিচিংগা

পানিতে ভরপুর এ সবজি রক্ত পরিশোধনের জন্য বিখ্যাত। সঙ্গে হজমেরও সহায়ক। শরীরকে ঠাণ্ডা রাখতেও এর জুড়ি নেই। রক্তচাপের রোগীদের জন্যে এটি উপকারী।

শসা

এ তো এমনি এমনি খাওয়া যায় কিন্তু গুণের কথা জানেন কজন। ইংরেজিতে সবজিটাকে আদর করে ডাকে গ্রীষ্মের ফিংগার ফুড। মানে আঙুলের ডগায় নিয়ে খাও। অন্যতম উপকারটা হলো পানির ঘাটতি তো মেটাবেই সঙ্গে শরীর থেকে বের করে দেবে বিষাক্ত উপাদান। এই ফাঁকে জেনে রাখুন,  একশ গ্রাম শসায় আছে মাত্র ১০ কিলোক্যালরি। শর্ত হলো কচি শসা খেতে হবে খোসাসহই।

জুকিনি

ধুন্দল গোত্রের কম পরিচিত এ সবজি ইদানিং স্থানীয় বাজারে বেশ দেখা যায়। দেখতে শসার মতো এ সবজির ভেতরও লাউয়ের মতো ৯০ ভাগ পানি থাকে। তবে এতে ডাবের পানির মতো ইলেকট্রোলাইট আছে প্রচুর। আছে পটাসিয়ামও। গরমে এ দুটোরও বেশ চাহিদা থাকে শরীরে। তবে স্বাদ বাড়াতে চাইলে জুচিনির সঙ্গে যোগ করুন ব্রকোলি, লাল-হলুদ ক্যাপসিকাম বা অন্য কোনো ফল।

লেটুস

বারান্দায় ছোট পানির বোতল বা টবে চাষযোগ্য এ সবুজ পাতাটি দেখলেই তো মন ঠাণ্ডা হয়ে যায়। তবে গরমে যাদের পেট ঠাণ্ডা করাটা জরুরি হয়ে দাঁড়ায় তাদের জন্যও লেটুস পাতা উপকারী বন্ধুর কাজ করে। ভিটামিন কে সমৃদ্ধ এ সবজি হাড়ের ঘনত্ব বাড়ায়। পাশাপাশি শরীরে জলের যোগানও রাখে ঠিকঠাক।