• আজ ১২ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

স্বামীর সামনেই ধষর্ণের চেষ্টা, শেষ পর্যন্ত নিজের জীবন দিয়ে রক্ষা করলেন স্ত্রীর ইজ্জত!

৯:০০ অপরাহ্ণ | রবিবার, জুন ২৬, ২০১৬ ঢাকা, দেশের খবর

dhorson

ধামরাই প্রতিনিধি- স্ত্রীকে ধর্ষণ থেকে বাঁচাতে শেষ পর্যন্ত প্রাণ দিতে হলো মাসুদ রানা নামে এক যুবকের। রোববার ভোর রাত ৩টার দিকে ঘটনাটি ঘটে  ঢাকার ধামরাইয়ে।  নিহত মো. মাসুদ ধামরাই উপজেলার সূত্রাপুর গ্রামের জালাল উদ্দিনের ছেলে।

পারিবারিক সূত্র জানায়, মাসুদ রানা স্ত্রী সাহিদা আক্তারকে ভোর রাত ৩টার দিকে দুনিগ্রাম বাসস্ট্যান্ডে পৌঁছে দিতে যায়। এ সময় স্থানীয় ইসরাফিফর বাহিনীর সদস্যরা স্ত্রীকে তারই সামনে জোরপূর্বক তুলে নিয়ে ধষর্ণের চেষ্টা চালায়। এতে তিনি বাধা দিলে সন্ত্রাসীরা তাকে বিভিন্ন কায়দায় পিটিয়ে ও নির্যাতন চালিয়ে হত্যার পর চলে যায়। এরপর স্ত্রীর ডাক চিৎকারে পথচারী ও স্থানীয়রা এসে ওই যুবককে উদ্ধার করে ধামরাইয়ের ইসলামপুর সরকারি আবাসিক মেডিকেলে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের স্ত্রী সাহিদা আক্তার স্ত্রী নির্বাক তাকিয়ে থাকছেন আর মাঝেমধ্যেই বলছেন, ইসরাফিল আমার স্বামীকে হত্যা করেছে। এই একই কথা তিনি বারবার বলছেন।

তদন্ত কর্মকর্তা এসআই মো. শাহীনুল ইসলাম বলেন, এ ব্যাপারে তদন্ত অব্যাহত রয়েছে। মেডিকেল প্রতিবেদনের পর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা সিদ্ধান্ত নেবেন এ ব্যাপারে কোন ধারায় মামলা দায়ের হবে।

ধামরাই থানার ওসি শেখ মোহাম্মদ রিজাউল হক দীপু বলেন, ঘটনাটি রহস্যজনক। মরদেহে আঘাতের চিহ্ন কিংবা খুনের কোনো আলামত নেই। কাজেই মৃত্যুর সঠিক কারণ নির্ণয়ে মরদেহটি ময়না তদন্তে পাঠানো হয়েছে। ময়না তদন্তের পরই এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। কাজেই এ ব্যাপারে আপাতত সাধারণ ডাইরি করা হয়েছে।