২০১৬ সাল থেকে পিইসি ও জিএসসি পরীক্ষা বাতিলের দাবি জানিয়েছে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট

৩:৫২ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, জুন ২৮, ২০১৬ রংপুর

psc-o-jsc-batil-koro

দিনাজপুর প্রতিনিধি –  ২০১৬ সাল থেকেই প্রথমিক শিক্ষা সমাপনী (পিইসি) ও জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি )পরীক্ষা বাতিলের দাবি জানান সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট দিনাজপুর জেলা শাখার আহ্বায়ক এ,এস,এম,মনিরুজ্জামান ও সাধারন সম্পাদক সুকুমার রায় ।   আজ  এক যুক্ত বিবৃতিতে তারা এ কথা বলেন ।

।তারা বলেন সরকার পিইসি ও জেএসসি পরীক্ষা চালু করার ফলে শিক্ষার গুণগত মান বৃদ্ধিতো পায়নি উপরন্তু শিক্ষার ব্যয় বৃদ্ধি পেয়েছে এবং ঝড়ে পড়া(drop out) শিক্ষার্থী’র সংখ্যা আরও বৃদ্ধি পেয়েছে। এই দুটি পাবলিক পরীক্ষা শিশু বয়স থেকেই ছাত্র ছাত্রীদের জানা বোঝার আগ্রহকে ধ্বংস করে তাদের শুধু পরীক্ষায় ভালো জিপিএ প্রাপ্তির দিকে ধাবিত করছে শুধুমাত্র পরীক্ষার্থীতে পরিনত করছে শিশুদের এর ফলে শিক্ষার মান ক্রম অবনতির দিকে নিয়ে যাচ্ছে তাই জিপিএ ৫ পাওয়া শিক্ষার্থীদের মধ্যেও জীবন সম্পর্কে নূন্যতম সাধারন জ্ঞান গড়ে উঠছে না অন্যদিকে কোচং ও গাইড বাণিজ্য ব্যাপক আকার ধারন করেছে, অধিকাংশ অভিভাবকদের পক্ষে সন্তানদের শিক্ষার ব্যয় বহন করা দূর্বিসহ হয়ে পরেছে। পিএসসি  ও জেএসসি  পরীক্ষার অকার্যকারিতা অসাড়তা তুলে ধরে আমাদের সংগঠন ও অভিভাবকদের পক্ষ থেকে পরীক্ষা দুটি বাতিলের দাবির প্রেক্ষিতে ২০১৬ সাল থেকে পিইসি পরীক্ষা বাতিলের ঘোষনা দেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রনালয়ের মাননীয় মন্ত্রী, কিন্তু গত ২৭ জুন মন্ত্রী সভার বৈঠকে ২০১৬ সালে পিইসি ও জেএসসি পরীক্ষা বহাল রাখার সীদ্ধান্ত গৃহিত হয় ফলে চরম বিপাকে পড়েছে কোমলমতি শিক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকবৃন্দ। এমতাবস্থায় তারা ২০১৬ সালের মধ্যে পিইসি ও জেএসসি পরীক্ষা বাতিলের দাবি জানান সরকারের কাছে। অন্যথায় সমাজতান্ত্রিক  ছাত্র ফ্রন্ট-এর পক্ষ থেকে ছাত্র শিক্ষক অভিভাবকদের সাথে নিয়ে ২০১৬ সালের মধ্যে পিইসি ও জেএসসি পরীক্ষা বাতিলের দাবিতে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন গড়ে তোলাড় ঘোষনা দেন নেতৃবৃন্দ।