সংসদে অর্থবিল সংশোধিত আকারে পাস

৩:৪৫ অপরাহ্ণ | বুধবার, জুন ২৯, ২০১৬ Breaking News, Uncategorized, অর্থনীতি, জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বর – প্রস্তাবিত বাজেটে বিদ্যমান কর ও শুল্ক হারের পরিবর্তনের বিধান রেখে অর্থবিল-২০১৬ জাতীয় সংসদে সংশোধিত আকারে পাস করা হয়েছে। বুধবার দুপুরে জাতীয় সংসদে অর্থবিল-২০১৬ পাসের জন্য উত্থাপন করেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

এর আগে গত ২ জুন এই বিল উত্থাপন করা হয়েছিলো। উত্থাপিত বিলের বিভিন্ন কর প্রস্তাবের ওপর মোট ১৮টি সংশোধনী গ্রহণ করা হয়। যদিও বিলের উপর জনমত যাচাই ও বাছাই করার প্রস্তাব দেন একাধিক সংসদ সদস্য। সেসব প্রস্তাব ভোটে নাকচ হয়ে যায়। পরে পাসের জন্য বিলটি কণ্ঠভোটে দেন ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বী মিয়া। সংসদে উপস্থিত বিরোধী দল জাতীয় পার্টি ও সরকারি দলের সংসদ সদস্যদের সর্বাধিক ভোটে অর্থবিলটি পাস হয়।

সরকারি দলের গোলাম দস্তগীর গাজী, হুইপ শহীদুজ্জামান সরকার, মো. শাহাবুদ্দিন, মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী, জাতীয় পার্টির কাজী ফিরোজ রশীদ, ফখরুল ইমাম, মো. নুরুল ইসলাম ওমর, নুরুল ইসলাম মিলন, বেগম নূর-ই-হাসনা লিলি চৌধুরী, মো. মামুনুর রশীদ ও স্বতন্ত্র সদস্য রুস্তম আলী ফরাজী বিলের ওপর জনমত যাচাই, বাছাই কমিটিতে প্রেরণ ও সংশোধনীর প্রস্তাব আনেন। জনমত যাচাই ও বাছাই কমিটিতে প্রেরণের প্রস্তাবগুলো কন্ঠ ভোটে নাকচ হয়ে যায়।

Mohit-songsod

বিলটিতে হুইপ মো. শাহাব উদ্দিন ও শহীদুজ্জামান সরকার, সরকারি দলের গোলাম দস্তগীর গাজী ও মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরীর ১৮টি সংশোধনী গ্রহণ করা হয়। বাকি সংশোধনী প্রস্তাবগুলো কন্ঠভোটে নাকচ হয়ে যায়। বিলে ২০১৬ সালের ১ জুলাই থেকে শুরু অর্থবছরের জন্য আর্থিক বিধান সম্বলিত কর ও শুল্ক প্রস্তাবের জন্য কতিপয় আইন ও বিধানের সংশোধন করা হয়েছে। তাছাড়া বিলে উল্লেখিত বিধানসমূহ ২০১৬ সালের ১ জুলাই থেকে কার্যকর করারও বিধান করা হয়েছে।