সংবাদ শিরোনাম
শারদীয় দুর্গাপূজার আজ সপ্তমী | দুর্গাপূজার সব তিথিই ‘মহা’নয় | মানবদেহ সম্পর্কে কিছু বিস্ময়কর তথ্য যা অনেকেরই অজানা | রোহিঙ্গাদের ৩৪ কোটি ডলার সহায়তা দেবে যুক্তরাষ্ট্র ইইউ ও ব্রিটেন | ঢামেক হাসপাতালকে পাঁচ হাজার শয্যায় উন্নীত করা হচ্ছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী | ‘রোহিঙ্গাদের যত দ্রুত সম্ভব তাদের নিজ দেশে ফিরে যেতে হবে’- পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী | নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ইলিশ মাছ ধরায় ১৮ জেলের কারাদণ্ড! | দেশের মানুষের নিকট জাতীয় পার্টি ছাড়া বিকল্প কোনো পার্টি নেই: জিএম কাদের | বয়স চার হলেই স্কুলে যাবে শিশুরা, ২ বছরের প্রাক-প্রাথমিক | পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বক্তব্যে বিক্ষুব্ধ সিলেটের টেলিভিশন সাংবাদিকরা |
  • আজ ৭ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

অবশেষে মুখ খুললেন এসপি বাবুল ! ‘প্রমাণ পেলে বাবুলের বিরুদ্ধে মামলা করবেন শ্বশুর মোশাররফ’

২:৫৮ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, জুন ৩০, ২০১৬ Breaking News, আলোচিত বাংলাদেশ, ফিচার

সময়ের কণ্ঠস্বর- ঢাকা

চাঞ্চল্যকর মিতু হত্যাকাণ্ডের নানামুখী তথ্যে শুধু গণমাধ্যম কর্মীরা নয়, পুরো দেশবাসীই এখন বিভ্রান্ত। দিন যত যাচ্ছে ততই পাওয়া যাচ্ছে অবিশ্বাস্য রকম নানা তথ্য। তদন্তের শুরুটা জঙ্গি সন্ত্রাসীসহ বিএনপি-জামায়াতের ক্যাডারদের মধ্যে ঘুরপাক খেলেও এখন তা ঢুকে পড়েছে খোদ মিতুর স্বামী এসপি বাবুল আক্তারের ঘরের মধ্যে। অনেকটা নিষ্ঠুর, নির্মম ও ঘৃণিত তথ্য হলেও অজ্ঞাত পুলিশ কর্মকর্তাদের বরাত দিয়েই প্রতিদিন সংবাদ প্রকাশ করছে দেশের বেশ কয়েকটি শীর্ষ গনমাধ্যম ।

এদিকে, ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত  দাবী করে এসপি বাবুলের শ্বশুর মামলার তদন্ত ও অগ্রগতি নিয়ে আশংকা প্রকাশ করে বলেছেন,” এখন যেটা হচ্ছে, তা সুষ্ঠু তদন্তের জন্য মোটেও সহায়ক নয়। এখন তো পরিস্থিতি এমন, পারলে বাবুলকে গ্রেফতার করে ক্রসফায়ার দিতে পারলে তাদের ভালো হয়।”

নির্ভরযোগ্য সূত্রের বরাত দিয়ে  দিন কয়েক আগে দাবি করা হয়, ” মিতুর পরকীয়া ঠেকাতে বাবুল আক্তার নিজেই এ খুনের পরিকল্পনাকারী ও নির্দেশদাতা। একজন মৃত মানুষের চরিত্র হনন ছাড়াও অনেকের কাছে বিশ্বাসযোগ্য হবে না বলে কোনো কোনো গণমাধ্যম বিষয়টিকে ভিন্নভাবে প্রকাশ করে। এরপর গত মঙ্গলবার আরও একটি দায়িত্বশীল সূত্রে বলা হয়, মিতু নয়, পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েছিলেন এসপি বাবুল আক্তার নিজেই। সেই মেয়ের সঙ্গে নির্বিঘ্নে সংসার পাততে বাবুল তার স্ত্রী মিতুকে এভাবে সরিয়ে দেয়ার পরিকল্পনা করেন। এজন্য তিনি তার রানার (ব্যক্তিগত বার্তাবাহক-পুলিশ কনস্টেবল) সাদ্দামের মাধ্যমে সোর্স মুসাকে দুই লাখ টাকা দিয়ে এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছেন” ইত্যাদি।

যেসব সূত্র থেকে এসব ‘ভয়াবহ ও অবিশ্বাস্য’ রকম তথ্য-উপাত্ত পাওয়া যাচ্ছে তা কোনো সাধারণ সূত্র নয়। সঙ্গত কারণে পরিচয় গোপন রাখার স্বার্থেই তারা বিভিন্ন গনমাধ্যমে এসব তথ্য উপাত্ত দিচ্ছেন। এমনকি এও বলা হচ্ছে, ”এসব সংবাদের সপক্ষে তাদের কাছে অনেক তথ্য প্রমাণও রয়েছে। এসপি বাবুল যার সঙ্গে পরকীয়া করেছেন সেই মেয়ের গ্রামের বাড়ি ফেনী। তাকেও নাকি জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।”

‘আমরা যদি মুখ খুলি তবে সব ষড়যন্ত্র উড়ে যাবে।’ হয়তো শেষ পর্যন্ত আমাদের মুখ খুলতেই হবে।

এমন টাল মাটাল অবস্থায়  গত মঙ্গলবার একটি জাতীয় দৈনিককে দেয়া একান্ত সাক্ষাৎকারে বাবুল আক্তারের শ্বশুর মোশাররফ হোসেন পুরো বিষয়টিকে বানোয়াট ও মহল বিশেষের গভীর ষড়যন্ত্র বলে আখ্যায়িত করেছেন। জামাতাবাবুলকে শতভাগ নির্দোষ দাবী করে তিনি জানান, ‘ একটি চক্র বাবুলকে চাকরি ছাড়া করতে এসব রটাচ্ছে। তিনি আরও জানান, কে কী বলল তাতে আমাদের কিছুই যায় আসে না। পত্রিকায় কী লেখা হল সেটা নিয়েও আমরা মাথা ঘামাচ্ছি না। আমরা আরও কিছু সময় অপেক্ষা করব। এরপর যখন আমরা মুখ খুলব, তখন সব ষড়যন্ত্র উড়ে যাবে। মামলার আইও (তদন্ত কর্মকর্তা) থেকে শুরু করে বড় বড় কর্মকর্তারও মুখ বন্ধ হয়ে যাবে।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তাসহ যারা বাবুলকে জড়িয়ে নানা কথাবার্তা বলছেন তাদের বাড়িতে গিয়ে তদন্ত করার দাবীও তোলেন সাবেক এই পুলিশ কর্মকর্তা।

বাবুলের বিরুদ্ধে যেসব উড়ো খবর বিভিন্ন গনমাধ্যমে প্রকাশিত হচ্ছে এসব যদি কখনো অনাকনাগখিত ভাবে প্রমানিত হয়, তাহলে আপনি কি করবেন সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে বাবুলের শ্বশুর জানান, ”  আমি শুধু বলব, মামলাটি সঠিকভাবে তদন্ত করা হোক। নিরপেক্ষ তদন্তে যদি বাবুলের জড়িত থাকার তথ্য বেরিয়ে আসে তবে আমরাই তার বিরুদ্ধে মামলা করব। সাক্ষ্য দেব। তার ফাঁসি চাইব। কারণ, এখন যেসব গল্প তৈরি করা হচ্ছে সেগুলো সত্য হতেও পারে আবার নাও পারে। কিন্তু মিতু যে খুনের শিকার হয়েছে তা একটি নির্মম বাস্তবতা।” সবশেষে এসপি ব্বুলের শ্বশুর সাবেক পুলিশ এই কর্মকর্তা জানান,

” তবে বাবুল যদি জড়িত থাকে তাহলে কাউকে চাপ দিতে হবে না। আমরাই তার বিরুদ্ধে মামলা করব।”

babul-akter..mitu-akter

এদিকে, সংশ্লিষ্ট নির্ভরযোগ্য মাধ্যমের বরাত দিয়ে একটি জাতীয় দৈনিকে এসপি বাবুল আক্তারের বক্তব্য সংগ্রহ করার দাবী করা হয়েছে। বাবুল আক্তারের বরাত দিয়ে সূত্রটি জানায়, বাবুল আক্তার জানিয়েছেন, তিনি যদি পরকীয়া করে থাকেন তাহলে সেই মেয়ের নাম পরিচয় প্রকাশ করা হোক। পরকীয়া করে থাকলে নিশ্চয় তিনি ওই মেয়ের সঙ্গে মোবাইল ফোনে কথা বলেছেন। কোথাও না কোথাও দেখা করেছেন। কেউ না কেউ তা দেখেও থাকতে পারেন। তাহলে সেসব প্রমাণ হাজির করা হোক। এছাড়া তিনি জানিয়েছেন, একসঙ্গে বহু চাঞ্চল্যকর মামলা তদন্তের অভিজ্ঞতা আছে তার। একটি ডাকাতি ও অস্ত্র মামলার তদন্তে অন্যতম সোর্স ছিলেন মুসা। তাই তিনি যদি তার স্ত্রী মিতুকে হত্যার পরিকল্পনা করেই থাকেন তাহলে তার মতো একজন পুলিশ অফিসার কেন সোর্স মুসাকেই ব্যবহার করবেন? এছাড়া পরকীয়ার কারণে যদি স্ত্রীর সঙ্গে মনোমালিন্য হয় তাহলে তাকে হত্যা করতে হবে কেন? সংসার না করলেই তো পারতেন। সর্বোপরি এ দাম্পত্য কলহের বিষয় গোপন থাকার কোনো সুযোগ নেই। কেউ না জানলেও তার শ্বশুরবাড়ির লোকজন অবশ্যই জানতেন। কিন্তু তারা কি এসব কখনও শুনেছেন?”

এসপি বাবুল আকতারের বক্তব্যের  বরাত দিয়ে আরও জানানো হয়, ” আসলে তার বিরুদ্ধে সেই ২০০৭ সাল থেকেই ষড়যন্ত্র চলে আসছে। তখনই তাকে একটি মহল শেষ করে দিতে চেয়েছিল। কিন্তু আল্লাহর রহমতে তারা তা পারেনি। ওই চক্রের সঙ্গে এখন নতুন করে যুক্ত হয়েছে আরও কিছু প্রতিহিংসাপরায়ণ প্রভাবশালী ব্যক্তি। যারা এসব নোংরা ও বানোয়োট কথা ছড়াচ্ছে। এসপি বাবুল আক্তারের প্রশ্ন- যারা প্রথমে বলেছিল মিতুর পরকীয়ার কারণে তিনি এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছেন তারা ওই ছেলের নাম বলুক, তাকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তো অনেক তথ্য জানার কথা। কিন্তু তারা তা করছে না কেন?”

এসপি বাবুল জানান, তার দুই সন্তানসহ তাদের গোটা পরিবারের শোকাবহ অবস্থার মধ্যে যারা এসব ঘৃণিত ষড়যন্ত্র করছেন তাদের মুখোশ একদিন উন্মোচন হবেই। তিনি বলেন, তার বড় ছেলে এখন মানসিকভাবে ট্রমাটাইজড। কেননা তার সামনেই খুনিরা তার মাকে হত্যা করেছে। এছাড়া সাড়ে ৩ বছরের ছোট্ট মেয়ে সারা দিন মা মা বলে আহাজারি করছে। ওদের মুখের দিকে তিনি তাকাতে পারছেন না। তিনি নিজেও বিপর্যস্ত। এ অবস্থায় যারা এসব করছে নিশ্চয় সরকারের নীতিনির্ধারক মহল বিষয়টি গভীরে গিয়ে খতিয়ে দেখবে।”

—————-

যোগাযোগ

১৮৫ নতুন এলিফ্যান্ট রোড,
রোজ ভিউ প্লাজা, ঢাকা-১২০৫

প্রতিষ্ঠাতা ও স্বত্ত্বাধিকারী
এম. আজিজুর রহমান

প্রকাশক

আহমেদ তৌফিক
☏ ০১৭১১৩৩৩০৯৫

উপদেষ্টা সম্পাদক
আমিনুল ইসলাম বেদু

নিউজ ডেস্ক

রবিউল ইসলাম
☏ ০১৭৭৭২২২১৬১

ফয়সাল শামীম
☏ ০১৭১৫০৯৮৭৪৫

সংবাদ সংযোগ

পলাশ মল্লিক
☏ ০১৭১১৯৭৬৪৬৬

মহিবুল্লা আকাশ
☏ ০১৮১৫৩০১৩০২