• আজ বুধবার। গ্রীষ্মকাল, ৮ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ। ২১শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ। সকাল ১১:৪৪মিঃ

কৃত্রিম পা পেয়ে মোশার নতুন জীবন !

১২:০০ পূর্বাহ্ন | শনিবার, জুলাই ২, ২০১৬ চিত্র বিচিত্র

ভিন্ন খবর ডেস্কঃ মোশা একটি হাতির নাম। বয়স যখন মাত্র সাত মাস ল্যান্ডমাইনের উপর ভুল করে পা দিয়ে ফেলেছিল থাইল্যান্ডের ছোট্ট এই হাতিটি৷ প্রচন্ড বিস্ফোরণে সামনের বাঁ পা খোয়া যায় তার ৷

রক্তাক্ত অবস্থায় তাকে নিয়ে যাওয়া হয় ল্যামপ্যাং প্রদেশের এশিয়ান এলিফ্যান্ট ফাউন্ডেশনে৷ মোশাকে বাঁচানো গেলেও আগের মতো স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে পারেনি সে ৷ বাঁ পা ছাড়া ৬০০ কেজি ওজনের শরীরটা টানতে বেশ কষ্ট হত তার৷

নিচু হয়ে হাঁটতে হত বলে শিরদাড়ায় চাপ পড়ত৷ দু’বছর পর তাকে নতুন জীবন দিলেন পশু চিকিৎসক থার্ডচাই জিভাকেট ৷

কষ্টের দিনগুলো মুছে ফেলে অনেকটাই স্বাভাবিক হয়ে উঠেছে মেয়ে হাতিটি ৷ সেই দুর্ঘটনার দশ বছর কেটে গিয়েছে ৷ সম্প্রতি নবম কৃত্রিম পা পেয়েছে সে ৷

mosaমোশার চিকিৎসক বলছেন, ঠিক মতো হাঁটতে না পারায় ওর শিরদাড়া ক্রমশ ঝুঁকে যাচ্ছিল ৷ হয়তো বেশিদিন বাঁচানো যেত না ওকে ৷

বর্তমানে মোশার নয়টি কৃত্রিম পা আছে। প্রয়োজনে এর যেকোনটি ব্যবহার করা যেতে পারে। এই পা-গুলো তৈরির জন্য নিয়োগ দেয়া হয়েছিল একদল প্রকৌশলী। শুধু মোশাই নয়, ওই দুর্ঘটনায় পা হারিয়েছিল তার বন্ধু মোতোলাও। তার দেহেও স্থাপন করা হয়েছে একটি কৃত্রিম পা ।

ফ্রেন্ডস অব দ্য এশিয়ান এলিফ্যান্ট ফাউন্ডেশনের কর্মীরা জানান, মোশার মতো অনেক হাতিই বিভিন্ন ল্যান্ডমাইন দুর্ঘটনায় আহত হয়ে অঙ্গ হারায়। বিশেষ করে দূরবর্তী বনাঞ্চলগুলোতে। মোশা এখন ভালো মেজাজে থাকে৷ বয়সের সঙ্গে সঙ্গে তার ওজনও বেড়ে হয়েছে ২ হাজার কেজি৷ মানুষের মতো কথা বলে চিকিৎসককে ধন্যবাদ জানাতে পারে না ঠিকই, তবে মনে মনে থের্ডচাইয়ের প্রতি সে নিঃসন্দেহে দারুণ কৃতজ্ঞ সে ৷চার পায়ে দাঁড়াতে পেরে মোশা এবং তার বন্ধু খুশি ।