• আজ ১৯শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ঈদ উৎসবে মেহেদীর আমেজ

১১:০৬ পূর্বাহ্ন | শনিবার, জুলাই ২, ২০১৬ লাইফস্টাইল

লাইফস্টাইল ডেস্ক: ঈদের আর বেশি দিন বাকি নেই। কেনাকাটার শেষ পর্যায়ে এখন সবাই। তবে ঈদ উপলক্ষে অন্যান্য প্রসাধনীর পাশাপাশি মেহেদি লাগানোর এক ধরণের রেওয়াজ আছে আমাদের দেশে। কারণ মেহেদি না দিলে উৎসবের আনন্দ পূর্ণতা পায় না। তাই চলে মেহেদি লাগানোর ধুম। তবে শুধু মেহেদি দিলেই চলবে না। চাই মন মতো নকশা আর রং।

mahadi

মেহেদি লাগানোর আগে অবশ্যই হাত ভালোভাবে ধুয়ে শুকিয়ে নিতে হবে। এরপর যখন এটি শুকাতে শুরু করবে তখন একটি পাত্রে লেবুর রস ও চিনি মিশিয়ে একটি মিশ্রণ গুলিয়ে নিন। এ মিশ্রণটি তুলার সাহায্যে হালকা শুকিয়ে যাওয়া মেহেদির উপর ছড়িয়ে দিন। এতে রং অনেকটা ফুটবে। রং গাঢ় চাইলে রাতে মেহেদি দেয়া ভালো, এতে অনেকটা সময় পাওয়া যায়।

ঘরে বাটা মেহেদির রং কমলা হয়ে যায়। এই রং গাঢ় করতে চাইলে চা পাতা জ্বাল দিয়ে তার মধ্যে সারা রাত মেহেদি পাতা বা মেহেদি গুঁড়া ভিজিয়ে রাখতে হবে। এর পরদিন বেটে হাতে লাগাতে হবে। তবে মেহেদি গুঁড়ার সঙ্গে এক চামচ কফি পাউডার মিশিয়ে নিলেও রঙ গাঢ় পাওয়া যাবে। এছাড়া কচি পেয়ারা পাতা, লেবুর রস, চা ইত্যাদি মিশিয়ে নেয়া যেতে পারে মেহেদির সঙ্গে। কারণ এই উপাদানগুলো রং গাঢ় হতে সাহায্য করে। মেহেদি উঠিয়ে ফেলার পর পানি দিয়ে না ধুয়ে সামান্য তেল মাখিয়ে রাখলেও রঙ গাঢ় হয়।

তবে খেয়াল রাখতে হবে, বাজারে বিভিন্ন নামের গোল্ড মেহেদি পাওয়া যায়। যা পাঁচ থেকে ১০ মিনিটে গাঢ় রঙ হয়ে যাওয়ার দাবি করা হয়। কিন্তু সেগুলো পুরোপুরি কেমিকেল যুক্ত। যা ত্বকের জন্য ক্ষতিকর। তাই যতটা সম্ভব প্রাকৃতিক মেহেদি ব্যবহার করা উচিত। এ জন্য মেহেদি ঘরে বেটেই তৈরি করে নেয়াই ভালো।