সংবাদ শিরোনাম

সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদ সস্ত্রীক করোনায় আক্রান্তরোহিঙ্গা শিশু অপহরণের পর হত্যার ঘটনায় নারীসহ দু’জন গ্রেপ্তারবেলকুচিতে দূর্বৃত্তদের আগুনে পুড়ে গেল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান !জামালপুরে মাদ্রাসা ছাত্রীকে রাতভর ধর্ষণ, গ্রেফতার মাদ্রাসার শিক্ষক‘করোনাকালের নারী নেতৃত্ব: গড়বে নতুন সমতার বিশ্ব’বগুড়ায় শিক্ষা প্রনোদনা পেতে প্রত্যয়নের নামে টাকা নেয়ার অভিযোগজামালপুরে ধর্ষণ মামলায় ধর্ষকের যাবজ্জীবনপাবনায় অবৈধ অস্ত্র তৈরির কারখানায় অভিযান, চারটি আগ্নেয়াস্ত্রসহ গ্রেফতার-২উপজেলা আ.লীগের সভাপতিকে ‘পেটালেন’ কাদের মির্জা!কে কত বড় নেতা, সবাইকে আমি চিনি: কাদের মির্জা

  • আজ ২৪শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

প্রত্যক্ষদর্শীর মতে- হামলায় অংশ নেয় মোট ৫ জঙ্গি

১২:১০ অপরাহ্ন | শনিবার, জুলাই ২, ২০১৬ জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বরঃ গুলশান ২ নম্বরের হলি আর্টিসান বেকারি নামের রেস্টুরেন্টে কমান্ডো অভিযানে ১২ জিম্মিকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। এদের একজন হাসনাত করিম। তিনি বেঁচে এসেছেন সপরিবারে।

তিনি জানিয়েছেন, ছেলে রায়ান করিমের জন্মদিন উপলক্ষে রেস্টুরেন্টে গিয়েছিলেন তিনি। সঙ্গে ছিলেন মেয়ে সাফা করিম ও স্ত্রী শারমিন পারভীন।

হাসনাত করিমের বরাত দিয়ে এনআর করিম জানান, জঙ্গিরা অমুসলিম জিম্মীদের ধরে ধরে হত্যা করেছে। তবে হাসনাত করিমের স্ত্রী হিজাব পরায় তাদের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করেনি তারা। রাতে একবার খেতেও দিয়েছিল তাদের।

তিনি জানান, হামলায় অংশ নিয়েছিল মোট ৫ জঙ্গি। তাদের সবাই গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হয়েছেন।

nihot 20উদ্ধার করে হাসনাত করিমকে ডিবি কার্যালয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। কিছু জিজ্ঞাসাবাদ করে তাকে বাসায় দিয়ে যাওয়া হবে বলে পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

শনিবার সকাল ৭টা ২০ মিনিটের দিকে সেনাবাহিনীর বড় পাঁচটি ট্রাক, ছোট জিপ ১০টি, নয়টি ট্যাংকের মতো দেখতে সাজোয়া যানসহ বিশাল বহর আসে। সেনাবাহিনী আসার কিছুক্ষণ পরই অর্থাৎ সকাল ৭টা ৪০ মিনিটে মূল অভিযান শুরু করা হয়। সেনা সদস্যদের সঙ্গে অভিযানে অংশ নেয় নৌবাহিনীর কমান্ডো, বিজিবি, পুলিশ ও র‍্যাবের বিশেষ বাহিনী। শুক্রবার রাতে অস্ত্রধারীদের আক্রমণের প্রায় ১০ ঘণ্টা পর অভিযানটি শুরু হয়।

অভিযান শুরু হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই রেস্টুরেন্টের ভেতর থেকে অস্ত্রধারীরা গুলি ছুড়ে। এসময় পাল্টা গুলি চালায় আইনশৃঙ্খলাবাহিনী। প্রায় ৪৫ মিনিট অভিযানের পর ভেতর থেকে এক কর্মকর্তা বেরিয়ে এসে জানান, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে।

উল্লেখ্য, রাত সাড়ে ৯টার দিকে হলি আর্টিসানে হামলা করে কয়েকজন অস্ত্রধারী। “আল্লাহু আকবর” আওয়াজ তুলে হামলা চালিয়ে তারা রেস্টুরেন্টে ঢুকে পড়ে দেশি বিদেশি প্রায় ৪০ নাগরিককে জিম্মি করে। এসময় তারা বেশ কয়েকটি বিস্ফোরণ ঘটিয়ে আতঙ্ক সৃষ্টি করে রেস্টুরেন্টের অবস্থানকারীদের জিম্মি করে। সন্ত্রাসীদের গুলিতে দুই পুলিশ কর্মকর্তা নিহত হওয়ার পাশাপাশি আহত হয়েছেন প্রচুর সংখ্যক পুলিশ সদস্য।