কিশোরগঞ্জে বারুদ নিয়ে খেলতে গিয়ে বিস্ফোরণে তিন শিশু আহত

১০:৩০ পূর্বাহ্ন | সোমবার, জুলাই ৪, ২০১৬ ঢাকা, দেশের খবর

সানি সূত্রধর, কিশোরগঞ্জ (নিকলি) প্রতিনিধি:

কিশোরগঞ্জ শহরের গাইটাল এলাকায় বারুদ নিয়ে খেলার সময় বিস্ফোরণে তিন শিশু আহত হয়েছে। এদের মধ্যে তারিফ (১২) নামে এক শিশুর অবস্থা গুরুতর। তার পা ও হাত মারাত্মকভাবে দগ্ধ হয়েছে। তাকে গুরুতর অবস্থায় ময়ময়নসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ৩ জুলাই রোববার বেলা ১১টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

kisorganjতারিফ কাতার প্রবাসী তাজুল ইসলামের ছেলে। সে জেলা পাবলিক স্কুলের ষষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্র। আহত অন্য দুই শিশুকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। তারা হলো, একই এলাকার আলাল মিয়ার ছেলে কাউসার (১১) ও মৃত সুমন মিয়ার ছেলে মুন্না (১০)। আহত কাউসার ও মুন্না জানায়, বাসার সামনে বসে তারিফ একটি অ্যালুমিনিয়ামের ছোট পাইপের ভেতরে কয়েকটি ম্যাচের (দিয়াশলাই) কাঠির বারুদ খুলে ভরতে থাকে। এ দৃশ্য তারা কিছুটা দূরে দাঁড়িয়ে দেখছিল। এক পর্যায়ে এ পাইপটিতে সে হাতুড়ি দিয়ে আঘাত করতেই বিকট শব্দে তা বিস্ফোরিত হয়। এতে মারাত্মকভাবে আহত হয় তারিফ। তারাও সামান্য আহত হয়।পরে এলাকাবাসী গুরুতর আহত তারিফকে কিশোরগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায়।

হাসপাতাল সূত্র জানিয়েছে, তার (তারিফ) দুই হাত ও পা পাইপের টুকরার আঘাতে জখম হয়েছে। কাউসারের মা সুরমা আক্তার জানান, তিনি তার ছেলেকে ভাত খেতে দিয়ে ঘরের কাজে ব্যস্ত ছিলেন। খাবার রেখে কখন সে বের হয়ে যায় তিনি দেখেননি। পরে সে আঘাত পেয়ে তার কাছে গিয়ে ঘটনা খুলে বলে। তার ছেলের দুই হাত বুকে আঘাত পেলেও তা গুরুতর নয় বলে জানান। মুন্নার নানা সাইদুর রহমান জানান, তার নাতি আঘাত পেলেও তা তেমন গুরুতর নয়। এ বিষয়ে কিশোরগঞ্জ মডেল থানার ওসি মীর মোশারফ হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ম্যাচের বারুদ নিয়ে খেলতে গিয়ে এ ঘটনাটি ঘটেছে। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।