মিতু হত্যা মামলার দুই আসামি ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

২:৫২ অপরাহ্ন | মঙ্গলবার, জুলাই ৫, ২০১৬ ফিচার

asami-mitu

সময়ের কণ্ঠস্বর: পুলিশ সুপার বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদা খানম মিতু হত্যা মামলার দুই আসামি রাশেদ ও নবী গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হয়েছেন। আজ  মঙ্গলবার ভোরে রাঙ্গুনিয়া উপজেলার ঠান্ডাছড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। তাদের মরদেহ উদ্ধার করে রাঙ্গুনিয়া থানায় নিয়ে গেছে পুলিশ।

রাশেদ ও নবী দুজনের বাড়িই রাঙ্গুনিয়া উপজেলায়। আদালতে দেয়া দুই আসামির জবানবন্দিতে রাশেদ এবং নবীর জড়িত থাকার কথা উঠে এসেছে। নবী সরাসরি কিলিং মিশনে অংশ নিয়েছিল। আর রাশেদ ঘটনাস্থলে থেকে খুনিদের পালাতে সহযোগিতা করেছিল।

নগর গোয়েন্দা পুলিশের সহকারী কমিশনার ও মামলার তদন্ত কর্মকর্তা কামরুজ্জামান সাংবাদিকদের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, রাশেদ ও নবী রাঙ্গুনিয়ার ঠান্ডাছড়ি এলাকায় অবস্থান করছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে সেখানে অভিযান চালানো হয়। সেখানে গেলে আসামিরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়লে পুলিশও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি চালায়। এতে গুলিবিদ্ধ হয়ে রাশেদ ও নবী মারা যান।

নিহত রাশেদ ও নবীর লাশ ময়নাতদন্তের জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ৫ জুন সকালে ছেলেকে স্কুলে নেওয়ার পথে চট্টগ্রামের জিইসি মোড় এলাকায় নিজ বাসার কাছেই দুর্বৃত্তদের এলোপাথারি ছুরিকাঘাত ও গুলিতে নিহত হন পুলিশ সুপার বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদা খানম মিতু। এ ঘটনায় তার স্বামী পুলিশ সুপার বাবুল আক্তার বাদী হয়ে চট্টগ্রাম নগরীর পাঁচলাইশ থানায় একটি হত্যা মামলা করেন।