শোলাকিয়ার হামলার পর ভারত নিরাপত্তা বাহিনী পাঠাচ্ছে বাংলাদেশে

৫:৪৮ পূর্বাহ্ন | শুক্রবার, জুলাই ৮, ২০১৬ জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক –   বাংলাদেশে আসছে ভারতীয় নিরাপত্তা বাহিনী। এমন খরব দিয়েছে ভারতের প্রভাবশালী দৈনিক টাইমস অফ ইন্ডিয়া ।

indian-ssf

সাথে ঢাকার ডেইলী স্টার লিখেছেন, Delhi is sending forces after attacks (শোলাকিয়ার হামলার পর ভারত

নিরাপত্তা বাহিনী পাঠাচ্ছে ) । তদন্তে বাংলাদেশে আসছে ভারতের অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা রক্ষায় নিয়োজিত সন্ত্রাসবিরোধী ফোর্স এনএসজি (ন্যাশনাল সিকিউরিটি গার্ড)।

বাংলাদেশের শোলাকিয়া ঘটনার মাত্র দুই ঘণ্টা পরেই ভারত এই ঘোষণা দেয় ।

এর আগে ১ জুলাই রাতে গুলশান ঘটনার পর পরেই ভারতীয় মিডিয়া ব্রেকিং নিউজ প্রচার করতে থাকে, বাংলাদেশে ভারত বিশেষ নিরাপত্তা বাহিনী পাঠাচ্ছে।

ভারতীয় বাহিনী পাঠানোর ঘোষণার পর পরেই সামাজিক মাধ্যমে ব্যাপোক প্রতিক্রিয়া লক্ষ্য করা যায় ।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও প্রখ্যাত নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞ শাহিদুজ্জামান লিখেছেন,

কোন দেশে আছি? এটা কি শুনছি? একি মামার বাড়ির আবদার ?

শাহরিয়ার শাহ লিখেছেন,

বাংলাদেশ কি দিল্লি? যদি ভারতীয়রা তদন্ত করতে তাহলে বাংলাদেশের এত বাহিনীর কি দরকার? তাদের কি কাজ? তাহেলে ই ধরে নিতে পারি এই হামলা তারাই করেছে যারা তদন্তের নামে বাংলাদেশে চাচ্ছে!! ভারত বাংলাদেশের বন্ধুই বা কখন ছিল। এদের প্রতিহত করুন সাথে সরকারকেও, সরকার ভারতীয় এজেন্ডা বাস্তবায়ন করছে।

এম আশারাফুজ্জজামান লিখেছেন,

বাংলাদেশে ‘বোমা বিশেষজ্ঞ’র আকাল পড়েছে। তা-ই ভারত থেকে আমদানী করতে হচ্ছে। অথবা, ‘বন্ধুত্বের’ নিদর্শন স্বরূপ ‘রপ্তানী’ করাও হতে পারে। তবে একখান কথা আছে: বাংলাদেশের ‘এলিট ফোর্স’ ও ‘দেশ প্রেমিক বাহিনী’র যাদেরকে ‘বোমা বিশেষজ্ঞ’ হিসেবে জনগণের করের টাকায় পোষা হয়, তাদের যোগ্যতা আসলে কোন পর্যায়ের? বাংলায় ‘চুল’ এর হিন্দী বা উর্দু প্রতিশব্দে যা হয়, বাংলাদেশের ‘বোমা বিশেষজ্ঞ’রা কি সেই জিনিস ছেঁড়ার কাজে দক্ষ?

নাজমুল হাসান লিখেছেন,

তদন্তের ভার বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর হাতে তুলে দেওয়া হলে সুষ্ঠু তদন্ত হবে বলে মনে করি । বাংলাদেশে এতো বাহিনী থাকতে ভারতীয় সেনাবাহিনীর দরকার কেন?

নাজিম এফ লিখেছেন,

যারা নিজ দেশে জংগিদের কিছু করতে পারে না তারা বাংলাদেশকে কিভাবে সাহায্য করবে?

সাংবাদিক সিরাজুল ইসলাম লিখেছেন,

শুনলাম ভারত নাকি বোমা বিশেষজ্ঞ পাঠাচ্ছে ঢাকায়……ডেইলি স্টারের শিরোনাম থেকে জানলাম খবরটি (Delhi sending bomb experts to Dhaka after attacks) শোলাকিয়া আর গুলশান হামলার ঘটনা পরীক্ষা করবে তারা। আচ্ছা বলেন তো, আমাদের দেশের চেয়ে ভারতে এ ধরনের হামলা কী কম হয়?? তারা তা ঠেকাতে পারে না কেন?? সেখানে কাদেরকে পাঠানো উচিত?? আর এই যে ভারতের বিশেষজ্ঞরা আসবে তারা কার আমন্ত্রণে আসবে?? নাকি নিজেরাই দায়িত্ব অনুভব করছে?? আমরা কোথায় গেলাম, কোথায় যাচ্ছি?? আজ ভারত, কাল আমেরিকা, পরের দিন ব্রিটিশ। এমনি করে আমরা হারিয়ে যাব না তো….. যেমন হারিয়ে গেছে ইরাক আর আফগানিস্তানের বিশাল সভ্যতা, বিশাল ঐতিহ্য!!!

লোকমান সামি লিখেছেন,

এই হামলাগুলো যে তাদেরই পরিকল্পিত তা সুস্পস্ট। হাছিনা আপাকে ম্যানেজ করে দেশ টাকে রসাতলে নিবে ভারত। জাতীয় ঐক্য করে একটা গণতান্ত্রিক সরকারকে ক্ষমতায় বসানো না গেলে ভারতী বাজার, বা অংগরাজ্য হতে বেশী দেরী নেই সোনার বাংলা। এতে আওয়ামীদের উল্লাস করার কারন নেই যেহেতু পলাশীর খলনায়কদেরই করুন পরিনতি হয়েছিল আওয়ামীদের সাথেও হয়তো তাই ঘটবে।

তানিয়া তাবাসুম লিখেছেন,

বাহ কি চমৎকার, আমাদের দেশের গোয়েন্দারা কি ফেলাতে শুধু বেতন নিচ্ছে, ভারত থেকে এখন গোয়েন্দা আনতে হবে? একটা স্বাধীন দেশের খবরদারি করতে আসছে ভারত এতে চেতনার ফেরিওয়ালাদের লজ্জা হয়না?

এম আহসান লিখেছেন,

যদি ভারত থেকে কোন গোয়েন্দা দল আসে,তাহলে আমি নির্দিধায় চোখ বন্ধ করে বলতে পারি,এই সমস্ত অপকর্ম এবং সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে জন্য ভারতীয় ‘র’ গোয়েন্দাগুলো সম্পূর্ণ দ্বায়ী।এবং তাদের আগ্রাসনের জন্য সরকারই দ্বায়ী।