এবার ঈদে হানিফ সংকেতের ভিন্ন আঙ্গিকের ইত্যাদি ও নাটক

৪:১০ পূর্বাহ্ন | শনিবার, জুলাই ৯, ২০১৬ বিনোদন

বিনোদন ডেস্ক –   গণমাধ্যম ব্যক্তিত্ব হানিফ সংকেত প্রতি রোজার ঈদে ইত্যাদির পাশাপাশি একটি করে নাটকও নির্মাণ করেন। এবারও তার ব্যতিক্রম হয়নি। ঈদে ইত্যাদি যেমন প্রচার হবে, তেমনি তার নির্মিত নাটকও প্রচার হবে। বলাবাহুল্য, কয়েক সহস্র ঈদ অনুষ্ঠানের মাঝে হানিফ সংকেতের ইত্যাদি ও নাটকের প্রতিই দর্শকের দৃষ্টি থাকে বেশি।

hanif

তারা এ দুটি অনুষ্ঠানের জন্য অপেক্ষা করেন। বলা যায়, দর্শকের ঈদ আনন্দের অন্যতম একটি উৎস হয়ে থাকে হানিফ সংকেতের অনুষ্ঠান। ইত্যাদি হানিফ সংকেতের রচনা, পরিচালনা ও উপস্থাপনায় গণমানুষের প্রিয় ম্যাগাজিন ইত্যাদির ঈদের পর্ব প্রচার হবে ঈদের পরদিন রাত ১০টা ১০ মিনিটে বিটিভি ও বিটিভি ওয়ার্ল্ডে। প্রতি ঈদেই থাকে ‘ইত্যাদি’র জমকালো এবং বিস্ময়কর আয়োজন। সব শ্রেণীর দর্শক অধীর আগ্রহে ঈদের ‘ইত্যাদি’র জন্য অপেক্ষা করেন।

এবারও ঈদের ‘ইত্যাদি’ ধারণ করা হয়েছে মিরপুর শহীদ সোহ্রাওয়ার্দী ইনডোর স্টেডিয়ামে। বিশাল সেটে কয়েক হাজার দর্শকের উপস্থিতিতে ধারণ করা হয় ‘ইত্যাদি’। ইনডোর স্টেডিয়ামের প্রায় তিন ভাগের এক ভাগ স্থান জুড়ে নির্মাণ করা হয়েছিল নান্দনিক সেট। বর্ণাঢ্য এই আয়োজনে পুরো অনুষ্ঠানটিতে এক উৎসবের আমেজ তৈরী হয়েছিল। ‘ইত্যাদি’ শুরু করা হয়েছে, ‘ও মন রমজানের ঐ রোজার শেষে এলো খুশীর ঈদ’ গানটি দিয়ে।

গান এক হলেও প্রতিবারের মত এবারও রয়েছে শিল্পী নির্বাচন এবং চিত্রায়নে বৈচিত্র্য। গানটিতে অংশগ্রহণ করেছেন ইত্যাদিতে প্রদর্শিত ব্রাহ্মণবাড়িয়ার দৃষ্টি প্রতিবন্ধী হেলাল মিয়ার শিল্পী পরিবার এবং তাদের নেতৃত্বে আরো শতাধিক দৃষ্টি প্রতিবন্ধী শিল্পী। এবারের ঈদ ‘ইত্যাদি’তে একটি দেশাত্মবোধক গান গেয়েছেন শিল্পী এন্ড্রু কিশোর। একটি বিশেষ পর্ব হচ্ছে ৪ মিনিটের নাটক। যেখানে দেখা যাবে ভিনগ্রহের তিন মানবের এই পৃথিবী নামক গ্রহে আগমন ও ভিন্ন অভিজ্ঞতা নিয়ে ফিরে যাওয়া। ব্যতিক্রমী এই নাট্যাংশে অংশ নিয়েছেন অভিনেতা ও পরিচালক শহীদুজ্জামান সেলিম, মীর সাব্বির এবং মডেল-অভিনেতা ঈমন এবং একটি বিশেষ চরিত্রে অভিনয় করেছেন জনপ্রিয় চিত্রনায়ক আলমগীর।

প্রতি ঈদের ইত্যাদির মত এবারের ‘ইত্যাদি’তেও একটি ভিন্ন আঙ্গিকের নাচের আয়োজন রয়েছে। আর এতে অংশগ্রহণ করেছেন বিনোদন অঙ্গনের চার তারকা শিল্পী চিত্রনায়ক ফেরদৌস, চিত্রনায়িকা পূর্ণিমা, মডেল অভিনেতা নোবেল ও অভিনেত্রী অপি করিম। ‘ইত্যাদি’র নানা চমকের একটি হচ্ছে বিশেষ মিউজিক্যাল ড্রামা। বিদেশীদের নিয়ে এবারও রয়েছে তেমনি একটি ব্যতিক্রমী আয়োজন। সা¤প্রতিক সময়ে আলোচিত কিছু বিষয় নিয়ে তৈরী এবারের দলীয় সঙ্গীতে অংশগ্রহণ করেছেন ‘ইত্যাদি’র নিয়মিত নৃত্যশিল্পীরা। দর্শক পর্বে নির্বাচিত দর্শকদের সাথে অংশগ্রহণ করেন ফোক সম্রাজ্ঞী মমতাজ। রয়েছে চার দৃষ্টি প্রতিবন্ধী বোনের ঈদ উদযাপন নিয়ে একটি বিশেষ প্রতিবেদন। মামার মানা সত্তে¡ও এবার ঈদেও মৌসুমী ব্যবসায়ী ভাগ্নে নতুন ব্যবসার পরিকল্পনা করেছে। নানী-নাতিকে এবার দেখা যাবে ষ্টুডিওতে দর্শকদের সামনে। এছাড়া ঈদকে ঘিরে ডজনখানেক বিদ্রƒপাত্মক রসালো নাট্যাংশ রয়েছে। ‘ইত্যাদি’র শিল্প নিদের্শনা করেছেন মুকিমূল আনোয়ার মুকিম। পরিচালকের সহকারী হিসাবে ছিলেন রানা সরকার ও এম.জি.এ মামুন। নির্মাণ করেছে ফাগুন অডিও ভিশন, স্পন্সর করেছে কেয়া কস্মেটিকস্ লিমিটেড ।