কোচিং সেন্টারে আটকে রেখে দিনভর ষষ্ঠ শ্রেনীর ছাত্রীকে ধর্ষণ, আটক চবি ছাত্র

১:৩২ অপরাহ্ন | সোমবার, জুলাই ১১, ২০১৬ অপরাধ, আলোচিত, স্পট লাইট

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি-

ষষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্রীকে কোচিং সেন্টারের একটি কক্ষে আটকে রেখে  ধর্ষণের অভিযোগে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি)র  এক ছাত্রকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ধর্ষণের শিকার স্কুলছাত্রীর মায়ের অভিযোগের ভিত্তিতে মো. মিজানুর রহমান (২২) নামের ঐ ছাত্রকে গতকাল রোববার রাতেই গ্রেফতার করে পুলিশ ।

আজ সোমবার তাকে আদালতে পাঠিয়েছে। গ্রেপ্তারকৃত মিজানুর বিশ্ববিদ্যালয়ের মনোবিজ্ঞান বিভাগের শেষ বর্ষের ছাত্র ও বায়েজিদ থানাধীন মোহাম্মদনগর এলাকার আবদুল মোনাফের ছেলে।

বায়েজিদ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মহসিন সময়ের কণ্ঠস্বরকে জানান, মিজানুর রহমানের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ করেছেন ওই ছাত্রীর মা।

তিনি জানান, মিজানুরের বাবা প্রবাসী। তার মা একটি কোচিং সেন্টারের  পরিচালক । মায়ের কোচিং সেন্টারেই  পড়াশোনা করত ধর্ষণের শিকার ছাত্রীটি। কোচিং সেন্টারের পড়ার সুবাদে  শিক্ষিকার বাসায় ছাত্রীটির যাতায়াত ছিল। সেই সুবাদে মিজানুরের সঙ্গে পরিচয় ছিল।

আটক চবি ছাত্র মিজানুর

আটক চবি ছাত্র মিজানুর

ধর্ষণের শিকার স্কুলছাত্রীর জবানবন্দীর বরাত দিয়ে ওসি মোহাম্মদ মহসিন সময়ের কণ্ঠস্বরকে জানান, গতকাল রোববার দুপুর একটার দিকে ঐ ছাত্রী শিক্ষিকার কাছে পড়তে গেলে বাসায় ঐ শিক্ষিকা না থাকার সুবাদে দুপুর দেড়টা থেকে বিকেল  চারটা পর্যন্ত বাসায় কোচিং সেন্টারের একটি ঘরে আটকে রেখে মিজানুর ওই ছাত্রীকে কয়েকবার ধর্ষণ করে। এবং কাউকে এসব কথা জানালে প্রানে মেরে ফেলার হুমকি দেয়। পরে এক বান্ধবীর বাসায় রেখে যায় তাকে।

এরপর গুরুতর অসুস্থ্য অবস্থায় ঐ বান্ধবীকে সাথে নিয়ে বাসায় ফিরে ছাত্রীটি তার মাকে সবকিছু খুলে বলে। সে রাতেই রাতে মা বাদি হয়ে অভিযোগ দায়ের করলে অভিযান চালিয়ে মিজানুরকে গ্রেপ্তার করা হয়।