চাঁপাইনবাবগঞ্জে কলেজপড়ুয়া গৃহবধুর ‘আত্মহত্যা’; স্বজনদের দাবী প্ররোচিত হত্যা

৩:৫৭ অপরাহ্ন | সোমবার, জুলাই ১১, ২০১৬ অকালমৃত্যু প্রতিদিন, দেশের খবর, রাজশাহী

জাকির হোসেন পিংকু,চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি:

চাঁপাইনবাবগঞ্জের সদর উপজেলার আমনুরা মাস্টারপাড়ায় পিতার বাড়ীতে রিমা নামের রাজশাহীতে প্যারামেডিকেল পড়–য়া এক শিক্ষার্থী গৃহবধু গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যার পর তাঁর স্বজনেরা একে স্বামী প্ররোচিত হত্যা বলে অভিযোগ করেছেন।

ঘটনাটি ঘটেছে রবিবার বিকেল ৫টার দিকে। রাতে মাইনুল হকের একমাত্র মেয়ে মরিয়ম খাতুন রিমা’র (২১) চাচা মফিজুল ইসলাম সদর থানায় রিমার স্বামী পাশের সেতুপাড়া গ্রামের আকবর আলী বাদশাহ’র ছেলে ও ঢাকায় কর্মরত বিমান বাহিনীর সদস্য আতিকুল ইসলামের (২৩) বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়েরের পর রাত ১টার দিকে রিমার মরদেহ উদ্ধার করে সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায় পুলিশ।

এর আগে পিতার বাড়ীতে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যার পর তার মরদেহ দরজা ভেঙ্গে বের করে স্বজনেরা। ঈদের ছুটিতে বাড়ীতে আসার পর স্বামীর সাথে কলহের জের ধরেই রিমা আত্মহত্যা করেছে বলে দাবী করছেন স্বজনেরা।

আগেও সে স্বামীর বিভিন্ন রকম নির্যাতনের শিকার  হয়েছে বলে দাবী করেছে রিমার চাচাত ভাই রিপন ও রাব্বানী।

রিমার মরদেহ সোমবার দুপুর ১টায় ময়নাতদন্ত করা হয়েছে। সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মায়হারুল ইসলাম সময়ের কণ্ঠস্বরকে জানান, এ ঘটনায় অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। পুলিশ পুরো ঘটনাটি তদন্ত করে দেখছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্টের ভিত্তিত্বে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

তবে প্রাথমিক তদন্তে পিতার বাড়ীতে এটি আত্মহত্যার ঘটনা বলে ধারণা করা হচ্ছে। তিনি জানান, প্রায় ১০ মাস আগে (২৯.০৯.১৫) গোপনে প্রেম করে বিয়ের পর মেয়ের পরিবার বিয়ে মেনে নেয়নি। তখন থেকেই সমস্যা ছিল।