এবার এক অন্তঃসত্ত্বা নারী যোগ দিলো আইএসে

৭:৫৯ অপরাহ্ন | সোমবার, জুলাই ১১, ২০১৬ আন্তর্জাতিক

international

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: নিজের মেয়েকে চিনতেন বুদ্ধিমতী‚ প্রাণচঞ্চল হিসেবে । মায়ের সেই চেনা মেয়েটা পাল্টে গেল । মা নিজে ধাক্কা খেলেন যখন দেখলেন হোয়াটস অ্যাপে মেয়ে দাঁড়িয়ে আছে বোরখা পরে । এখন বাবা মা দুজনেই চলে গেছেন দুঃস্বপ্নের ঘোরে । কারণ‚ শুনছেন‚ তাদের হবু-চিকিৎসক মেয়ে গর্ভবতী অবস্থায় যোগ দিয়েছেন আইএস জঙ্গীদলে! ঘটনা ভারতের কেরলের। জানা গেছে শুধু কেরল থেকেই ২১ জন তরুণ-তরুণী নিখোঁজ ।
গত এক মাসের বেশি সময় ধরে তাদের কোনও সন্ধান নেই বাড়ির লোকের কাছে । প্রশাসনের সন্দেহ‚ এঁরা সবাই যোগ দিয়েছেন ইসলামিক স্টেট জঙ্গিগোষ্ঠীতে ।

তাদের মধ্যে একজন হলেন এই তরুণী । তার বাবা মা জানিয়েছেন‚ ছোট থেকেই মেয়ে খুব বুদ্ধিমতী ছিলেন । ইদানীং হস্টেলে থেকে ডেন্টিস্ট হওয়ার জন্য পড়াশোনা করছিলেন। তার বড়ভাই এনএসজির কম্যান্ডো । ছেলের পরে এ বার মেয়েকেও প্রতিষ্ঠিত দেখবেন বলে আশায় আশায় ছিলেন বাবা-মা । কিন্তু কয়েকদিনের মধ্যে আচমকাই পাল্টে গেলেন তাদের ধর্ম প্রাণ মেয়ে । বাড়িতে না জানিয়ে বিয়ে করেন এক খ্রিস্টান তরুণকে । পরে দুজনে ইসলামে ধর্মান্তরিত হন । প্রথমে আপত্তি থাকলেও পরে মেয়ের ইচ্ছেকে মেনে নেওয়া হয় বাড়িতে । মেয়ে শর্ত দেন‚ তিনি বাড়িতে গেলে একমাত্র বোরখা পরেই যাবেন ।

মেনে নেওয়া হয় সেটাও । এরপর বোরখা পরেই বাবা মায়ের কাছে আসেন মেয়ে । কাটিয়ে যান কদিন । মে মাসে ওই তরুণী বাড়িতে জানান তিনি শ্রীলঙ্কায় যাচ্ছেন ব্যবসা করতে । ক্রমশ ক্ষীণ হয়ে আসে যোগাযোগ । তারপর কথা হলেও নিজের অবস্থান কিছুতেই বলতে চাইতেন না ওই তরুণী । কিন্তু জুনের প্রথম সপ্তাহ থেকে তার আর কোনও সন্ধানই নেই । বাড়ির লোক জানেনই না মেয়ে কোথায় । এমনকী তারা বেশি কোনও তথ্য জানেন না জামাইকে নিয়েও । শুধু এটুকু জানেন তার বয়স ৩২ বছর । এবং তিনি একজন এমবিএ । প্রশাসনের সন্দেহ ওই তরুণী যোগ দিয়েছেন আইএসএ।