সংবাদ শিরোনাম

দেশে আবারও লাফিয়ে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ, মৃত্যু ১৩ফের করোনার সংক্রমণ বাড়ার আশঙ্কা, প্রধানমন্ত্রীর তিন নির্দেশনাবাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক আরও মজবুত হবে: : নরেন্দ্র মোদিসীমানা বাণিজ্যের ক্ষেত্রে বাধা হওয়া উচিত নয়: প্রধানমন্ত্রীগাজীপুরে শিশু ধর্ষণের অভিযোগে যুবক আটককালকিনিতে পরকীয়া প্রেমিক-প্রেমিকা আপত্তিকর অবস্থায়  আটকজিয়াউর রহমানকে নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য আপত্তিকর: রিজভীনিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বরযাত্রীবাহী বাস ধানক্ষেতে, আহত ১৫রংপুরে ধর্ষণ মামলায় এএসআইসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিটসিরাজগঞ্জে পুত্রবধু ধর্ষণের অভিযোগে শ্বশুর গ্রেফতার

  • আজ ২৪শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

পুলিশের তৎপরতায় আটক হলো মন্দিরে ঢুকে পুরোহিতের সন্ধানকারী সেই ৩ যুবক !

১২:২৯ পূর্বাহ্ন | বুধবার, জুলাই ১৩, ২০১৬ আলোচিত বাংলাদেশ, স্পট লাইট

magura_pic


মাগুরা প্রতিনিধি: মাগুরায় কালী মন্দিরে ঢুকে পুরোহিতের সন্ধানকারী সন্দেহভাজন ৪ যুবককে সনাক্ত করে এদের মধ্যে তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ। আজ মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে তাদের আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলেন, মাগুরা সদরের কাশিনাথপুর গ্রামের কেরামত মোল্লার ছেলে সুমন আহম্মেদ (২৫), সদর উপজেলার রায়গ্রামের ওহাব মোল্লার ছেলে শাহাবউদ্দিন (২০) ও শহরের পারলা বেলতলা এলাকার আকাশ (২২)।

সনাক্ত হওয়া আরেক যুবক হলেন- সদর উপজেলার মির্জাপুর গ্রামের বাবুল লস্করের ছেলে শাহাব উদ্দিন লস্কর (২০)। পুলিশ তাকে আটক করার চেষ্টা করছে বলে জানা গেছে।

আটক যুবকদের মধ্যে সুমন মাগুরা সদরের আবালপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এমএলএসএস পদে চাকরি করেন। আর আকাশ বেকারি ব্যসায়ী। শাহাবুদ্দিন ও সনাক্ত হওয়া অপর যুবক সাহাব উদ্দিন লস্কর মাগুরা সরকারি হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজে একাদশের ছাত্র। মাগুরার পুলিশ সুপার একেএম এহসান উল্লাহ সাংবাদিকদের জানান, সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে কালি মন্দিরে প্রবেশকারী সুমন আহম্মেদকে সনাক্ত করে রাত ৮ টার দিকে গ্রামের বাড়ি থেকে আটক করা হয়। পরে সুমনের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী অপর তিন যুবককে সনাক্ত করে শহরের জামরুলতলা এলাকা থেকে অন্য দুইজনকে আটক করা হয়।

তিনি আরো জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সুমন জানিয়েছে, সে তার অসুস্থ মায়ের জন্য কালি মন্দিরের পুরোহিতের কাছে তদবির আনতে গিয়েছিল। অটকদের হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ ও তাদের দেওয়া তথ্য যাচাই-বাছাই করা হচ্ছে। আর তাদের দেওয়া তথ্য যাচাই-বাছাই শেষে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

উল্লেখ্য, সোমবার রাতে সন্দেভাজন এক যুবক মাগুরা শহরের কেন্দ্রীয় কালিবাড়িতে প্রবেশ করে। এ সময় তার সাথে আসা তিনজন মন্দিরের বাইরে অবস্থান করে। মন্দিরের ভেতরে ঢুরে সন্দেহভাজন ওই যুবক তাবিজ ও তদবির নেওয়ার কথা বলে মন্দিরের সামনে থাকা সমর কুমার নামে এক দর্শনার্থীর কাছে পুরোহিত পরেশ মজুমদারের খোঁজ-খবর নিতে থাকেন। পরে মন্দির কর্তৃপক্ষ ঘটনাটি পুলিশ জানালে পুলিশ সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে তাদের সনাক্ত করে।