• আজ রবিবার, ৪ আশ্বিন, ১৪২৮ ৷ ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ৷

কক্সবাজারে বৌদ্ধ ভিক্ষুকে কুপিয়ে হামলার ঘটনায় মূল আসামী লামা থেকে গ্রেফতার


❏ বৃহস্পতিবার, জুলাই ১৪, ২০১৬ আলোচিত, চট্টগ্রাম

b1a0e160-4b03-4084-9555-d2b2c4e2b4e5


এস.কে খগেশপ্রতি চন্দ্র খোকন, লামা(বান্দরবান)প্রতিনিধি ঃ

কক্সবাজার শহরে উইমাতারা বৌদ্ধ মন্দিরের প্রবীণ বৌদ্ধ ভিক্ষু উ পাঁই দিত্ত্বা ভিক্ষুকে (৭৭) কুপিয়ে ও পিটিয়ে গুরুতর আহত করার ঘটনার মূল হামলাকারীকে পার্বত্য বান্দরবানের লামা উপজেলা থেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। লামা থানার পুলিশের সহায়তায় কক্সবাজার থানার পুলিশ লামা উপজেলার রুপসীপাড়া ইউনিয়নে অভিযান চালিয়ে দরদরী সুনন্দ বৌদ্ধ বিহার থেকে মূল হামলাকারী ভিক্ষু মংয়াইন রাখাইন(৪৭)কে গ্রেফতার করে রাতেই কক্সবাজার নিয়ে যায়।

জানা গেছে, গত ১৩ জুলাই বুধবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে কক্সবাজার শহরের বৌদ্ধ মন্দির এলাকার ঐতিহ্যবাহী কক্সবাজার শহরের উইমাতারা বৌদ্ধ মন্দিরের প্রবীণ বৌদ্ধ ভিক্ষু উ পাঁই দিত্ত্বা ভিক্ষুকে (৭৭) কুপিয়ে ও পিঠিয়ে জখম করেছে তারই অনুসারী ভিক্ষু মংয়াইন রাখাইন। গুরুতর আহত প্রধান ভিক্ষুকে প্রথমে কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে আইসিইউতে ভর্তি করেন। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করে দেয়। বর্তমানে আহত ভিক্ষু চমেক হাসপাতালে চিকিৎসাধিন রয়েছে।

কক্সবাজার সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আসলাম হোসেন এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি এ প্রতিবেদককে জানান, শহরের উইমাতারা বৌদ্ধ মন্দিরের প্রবীণ বৌদ্ধ ভিক্ষু উ পাঁই দিত্ত্বা ভিক্ষুকে(৭৭) কুপিয়ে ও পিটিয়ে গুরুতর জখম করে তারই অনুসারি ভিক্ষু মং য়াইন রাখাইন। সে হামলা করে পালিয়ে যায়। আমরা বিভিন্ন মাধ্যমে তার অবস্থান জানতে পেরে লামা থানা পুলিশের সহায়তায় অভিযান চালিয়ে বুধবার দিবাগত রাত ২টায় লামা উপজেলার রুপসীপাড়া ইউনিয়নের দরদরী সুনন্দ বৌদ্ধ বিহার থেকে তাকে আটক করা হয়। গতকাল বুধবার রাতে মন্দিরের সভাপতি বাদী হয়ে ভিক্ষু মংয়াইন রাখাইনকে (৪৭) আসামী করে কক্সবাজার সদর মডেল থানায় মামলা করেন। মামলা নং-২২, তারিখ-১৩ জুলাই ২০১৬। কি কারণে এ ঘটনা ঘটেছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, প্রাথমিক তদন্তে জানাযায়, বৌদ্ধ মন্দিরের জমি বিক্রির টাকা ভাগ-বাটোয়ারা নিয়ে এ ঘটনা ঘটেছে।

লামা থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক ও বর্তমানে লামা থানার দায়িত্বরত অফিসার জাহেদ নূর বলেন, রাত ১২ টার পর থেকে আমরা লামা থানা ও কক্সবাজার থানার পুলিশ যৌথভাবে অভিযান চালাই। রাত প্রায় ২টার দিকে তাকে লামার দরদরী সুনন্দ বৌদ্ধ বিহার থেকে আটক করা হয় এবং কক্সবাজার থানার পুলিশ তাকে নিয়ে যায়। হামলাকারী মংয়াইন রাখাইন একজন বৌদ্ধ ধর্মের ভিক্ষুদের অনুসারী ছিল।

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন