সংবাদ শিরোনাম

নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বরযাত্রীবাহী বাস ধানক্ষেতে, আহত ১৫রংপুরে ধর্ষণ মামলায় এএসআইসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিটসিরাজগঞ্জে পুত্রবধু ধর্ষণের অভিযোগে শ্বশুর গ্রেফতারওবায়দুল কাদের সাহেব আমি রাজাকারের সন্তান নই: কাদের মির্জাসিলেটে সাংবাদিকতায় সফল নারী সুবর্ণা হামিদহিলিতে ৩ ভুয়া চিকিৎসকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের কারাদন্ডমিনুসহ বিএনপির চার নেতার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলার আবেদনআত্মহত্যার ২ মাস পর ছড়ানো হলো স্কুলছাত্রীর আপত্তিকর ভিডিও, অভিযুক্ত পলাতকচট্টগ্রাম কারাগার থেকে পালানো আসামি রুবেল নরসিংদীতে গ্রেপ্তারবাস থেকে নারীকে ছুড়ে ফেলা সেই চালক-হেলপার গ্রেফতার

  • আজ ২৪শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

নর্থ সাউথে জঙ্গিবাদি বই, লাইব্রেরিয়ান বরখাস্ত

১০:২৮ অপরাহ্ন | শুক্রবার, জুলাই ১৫, ২০১৬ Breaking News, আলোচিত বাংলাদেশ, শিক্ষাঙ্গন, স্পট লাইট

সময়ের কণ্ঠস্বর – জঙ্গিবাদ ইস্যুতে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হয়েছে বেসরকারি উচ্চ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়। এবার বিশ্ববিদ্যালয়টির গ্রন্থাগারিক ড. মোস্তাফিজুর রহমানকে বরখাস্ত করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

শুক্রবার বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) অতিরিক্ত পরিচালক (জনসংযোগ) মো. ওমর ফারুক এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে গ্রন্থাগারিক ড. মোস্তাফিজুর রহমানকে বুধবার বরখাস্ত করা হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্রন্থাগারে হিজবুত তাহরিরের বই পাওয়া যাওয়ায় তার বিরুদ্ধে এই ব্যবস্থা নেওয়া হয়।

তবে শুক্রবার সন্ধ্যা পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়টির ওয়েবসাইটে গ্রন্থাগারিকের নামের তালিকা থেকে গ্রন্থাগারিক ড. মোস্তাফিজুর রহমানের নাম বাদ দেওয়া হয়নি।

গত বছর ইউজিসির প্রতিনিধি দল এক পরিদর্শন প্রতিবেদনে নর্থ সাউথের গ্রন্থাগারে জঙ্গিবাদী বইয়ের কথা উল্লেখ করে। এতে জানানো হয়, ওই গ্রন্থাগারে হিজবুত তাহরিরের বইগুলো কিভাবে আসল, তার সুস্পষ্ট জবাব দিতে পারেননি। অনুমতি ছাড়া কীভাবে সেই বই ইস্যু হলো সে ব্যাপারেও তিনি কোনো তথ্য দিতে পারেননি।

পরে সেসব বই পুড়িয়ে ফেলতে সরকারি নির্দেশনা দেওয়া হয়। তবে তখন থেকে এ বিষয়ে নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ কোনো বক্তব্য দেয়নি।

north-su

বৃহস্পতিবার (১৪ জুলাই) বিশ্ববিদ্যালয় পরিদর্শনে যায় ইউজিসির একটি তদন্ত দল। কমিশনের দুই সদস্য আফরোজা বেগম, শাহনেওয়াজ আলীসহ চার সদস্যের প্রতিনিধি দল দুপুর ১২টা থেকে বিকেল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের বারিধারা ক্যাম্পাস পরিদর্শন করেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন প্রশাসনিক কর্মকর্তা বলেন, ‘জঙ্গি সম্পৃক্ততার অভিযোগ ওঠার পর থেকে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন এ বিষয়ে খুব সতর্কতা অবলম্বন করছে। সন্দেহভাজন শিক্ষক ও ছাত্রের ব্যাপারে খোঁজ খবর নেওয়া হচ্ছে। দায়ীদের বিষয়ে অবশ্যই ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

উল্লেখ্য যে, গুলশানে হামলাকারী নিবরাস ইসলাম ও শোলাকিয়ায় হামলা চালাতে গিয়ে পুলিশের গুলিতে নিহত আবির রহমান নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ছিলেন। গুলশানে উদ্ধার জিম্মিদের মধ্যে আবুল হাসনাত রেজা করিম ছিলেন নর্থ সাউথের সাবেক শিক্ষক। এছাড়া গণমাধ্যমে প্রকাশিত নিখোঁজ যে ১০ জন যুবকের তালিকা দেওয়া হয়েছে, তাঁদের মধ্যে জুন্নুন শিকদার এবং বাসারুজ্জামানও নর্থ সাউথে পড়াশোনা করেছেন। এসব ঘটনায় সরকার ইউজিসিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিরুদ্ধে যাবতীয় অভিযোগ তদন্ত করতে নির্দেশ দিয়েছে।

এ ছাড়া দেশের সবগুলো বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শীর্ষ কর্মকর্তাদের নিয়ে বৈঠক করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। ১৭ জুলাই সকাল সাড়ে ১০টায় রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে।