আড়াইহাজারে মেয়ের মৃত্যুর দুই মাস পর বাবার মামলা দায়ের


❏ শুক্রবার, জুলাই ১৫, ২০১৬ দেশের খবর, মফস্বল সংবাদ

araihajar


এম এ হাকিম ভূঁইয়া,আড়াইহাজার প্রতিনিধি: নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলার কলাগাছিয়া এলাকায় মেয়ে হালিমার আত্মহত্যার দুই মাস পর বাবা মুকবল হোসেন একটি হত্যা মামলা (পিটিশন) দায়ের করেছেন। নারায়ণগঞ্জের আদালতে হত্যায় প্ররোচনাকারী শুভ নামে এক যুবকসহ তার পরিবারের আরও পাঁচ ব্যক্তিকে আসামি করা হয়েছে। শুভ ওই এলাকার হারুনের ছেলে। মামলাটি তদন্ত করে আগামী ১০ আগস্টের মধ্যে আদালতে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। তবে স্থানীয় প্রভাবশালী একটি মহলের চাপের মুখে নিহতের পরিবারের লোকজন আতংকে রয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

জানা গেছে, কলাগাছিয়া এলাকার হারুনের ছেলে শুভ’র সাথে একই এলাকার মুকবলের মেয়ে হালিমার প্রেমের সর্ম্পক গড়ে ওঠে। ১১ মে শুভ’র রাড়িতে গিয়ে বিয়ের জন্য চাপ দেয়া হলে শুভ বিয়ের প্রস্তাব প্রত্যাখান করেন। সেদিন ক্ষিপ্ত হয়ে শুভ ও তার পরিবারের লোকজন হালিমাকে অপমান করে তাড়িয়ে দেয়। এদিকে নিহতের পরিবারের ধারণা, অপমান সহ্য করতে না পেরেই হালিমা বিষাক্ত পদার্থ খেয়ে আত্মহত্যা করে থাকতে পারে। ঘটনার দুই মাস পর নারায়ণগঞ্জের আদালতে শুভকে হত্যার প্ররোচনাকারী উল্লেখ করে তার পরিবারের আরও পাঁচ ব্যক্তির বিরুদ্ধে মামলা (পিটিশন) দায়ের করেন। তবে শুভ অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, হালিমার সঙ্গে তার কোনো প্রেমের সম্পর্কই ছিল না। সামাজিকভাবে তার ভাবমূর্তি নষ্ট করার উদ্দেশে তার বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ আনা হয়েছে।

আড়াইহাজার থানার ওসি মোঃ সাখাওয়াত হোসেন বলেন, পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনার দিন ওই কিশোরির লাশ উদ্ধার করে ছিল। এ ঘটনায় নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে কোনো অভিযোগ না থাকায় একটি অপমৃত্যু (ইউডি) মামলা দায়ের করা হয়ে ছিল। ওসি আরও বলেন, আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী মামলাটি তদন্ত করা হচ্ছে।