সংবাদ শিরোনাম

বয়স ১০০ ছুঁইছুঁই, দুলি খাতুনের ভাগ্যে কবে জুটবে বয়স্ক ভাতা?ওয়ান শুটারগান ও গুলিসহ আনোয়ারার গেট্টু নাছির গ্রেপ্তারপ্রয়োজনে আরও ভ্যাকসিন কেনা হবে: প্রধানমন্ত্রীটাঙ্গাইলে যৌন হয়রানি ও অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে প্রধান শিক্ষক বরখাস্তজামালপুরে বাগানে মিলল তরুণীর ঝুলন্ত লাশ, মৃত্যু নিয়ে রহস্যসুবর্ণচরে ধর্ষণের শিকার হয়ে স্কুলছাত্রীর আত্নহত্যাভোটের অধিকার আদায়ে প্রয়োজনে আন্দোলনে নামবে জাতীয় পার্টি: বাবলুরাজশাহীতে বিএনপির সমাবেশে যেতে তাবিথকে ‘বাধা’গাজীপুরে সকল ট্রেনের যাত্রাবিরতির দাবিতে অবস্থান ধর্মঘটচমেকে অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষ, ব্যাপক ভাঙচুর

  • আজ ১৭ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

‘গুলশান হামলার পরিকল্পনা ও প্রস্তুতি দেশেই’

২:৪৭ অপরাহ্ন | শনিবার, জুলাই ১৬, ২০১৬ Breaking News, জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বর- ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া বলেছেন, গুলশান হামলার পরিকল্পনা দেশেই করা হয়েছে। হামলাকারী সবাই দেশি এবং তাদের রিক্রেুটমেন্ট ও প্রশিক্ষণও হয়েছে দেশে। তবে তাদের পেছনে আন্তর্জাতিক মদদ থাকার সন্দেহ পুলিশ উড়িয়ে দিচ্ছে না।

আজ শনিবার দুপুরে ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে গুলশান হামলা মামলার সার্বিক বিষয় তুলে ধরতে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ সব কথা বলেন।

আছাদুজ্জামান মিয়া বলেন, পাঁচ-ছয়জন জঙ্গি মিলে গুলশান হামলার মতো এতো বড় ঘটনা ঘটাতে পারে না। এর পেছনে মদদ আছে। আন্তর্জাতিক মদদ থাকতে পারে। আমরা এই আশঙ্কা উড়িয়ে দিচ্ছি না।asadগুলশান হামলার মামলার সার্বিক অগ্রগতি ভালো জানিয়ে তিনি বলেন, তদন্তে অনেক এগিয়েছে। কারা এদের মদতদাতা, অর্থদাতা ও আশ্রয়তাদাতা এসব খুঁজে বের করা হচ্ছে। তদন্তের খাতিরেই বিস্তারিত কিছু বলছি না এখনই।

গুলশান হামলার নেপথ্যে থাকা কয়েকজন ভারতে গ্রেফতার হয়েছে- এ সংক্রান্ত সংবাদের বিষয়ে ডিএমপি কমিশনারের কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, এ ব্যাপারে পুলিশের কাছে কোনও তথ্য নেই।

গুলশান হামলার ঘটনায় পুলিশের ভূমিকা নিয়ে সমালোচনা করায় গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর বক্তব্য জঙ্গিবাদ মদতের শামিল বলেও মন্তব্য করেন ডিএমপি কমিশনার।

ডিএমপি কমিশনার বলেন, সম্প্রতি জাতীয় প্রেসক্লাবে এক গোলটেবিল বৈঠকে জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেছেন- বনানীর ওসি কেন গুলশানের ঘটনায় আগে গিয়েছে।

তিনি বলেন, তার (জাফরুল্লাহ চৌধুরী) এ বক্তব্যের বিষয়টি আমি স্পষ্ট করতে চাই। বনানীর ওসি সালাহ উদ্দিন নির্দেশনা অনুযায়ীই ঘটনাস্থলে গিয়েছিলেন। ডিএমপি জানিয়েছিল জঙ্গি হামলা হয়েছে, পুলিশ ফোর্সকে সেখানে গিয়ে ঘিরে ফেলার নির্দেশনা দেয়া হচ্ছে- ওসি সালাহ উদ্দিন সে হিসেবেই সেখানে যান।

ড. জাফরুল্লাহর এমন বক্তব্যের বিষয়ে ব্যবস্থা নেয়ার ইঙ্গিত দিয়ে ডিএমপি কমিশনার বলেন, তার এমন বক্তব্য উদ্দেশ্যপ্রণোদিত এবং জঙ্গিবাদে মদত দেয়ার শামিল।