জমি দখল নিয়ে উত্তেজনা, কালিয়াকৈরে বিরোধপূর্ণ জমি নিয়ে হামলা ভাংচুর আহত-১৩

৯:০৪ অপরাহ্ন | শনিবার, জুলাই ১৬, ২০১৬ ঢাকা, দেশের খবর

128824_112


আলমগীর হোসেন, কালিয়াকৈর প্রতিনিধি:

গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার সফিপুর এলাকার ইবনেসিনা ফার্মাসিটিক্যাল ইন্ডাষ্ট্রি লিমিটেড এর ভেতর বিতর্কিত ১৫১ শতাংশ জমি নিয়ে হামলা ভাংচুর ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে নারী ও শিশুসহ কমপক্ষে ১৩জন আহত হয়েছে। আহতদের উদ্ধার করে কালিয়াকৈর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

ঘটনায় ইবনেসিনার মূল ফটক থেকে ডেপুটি ম্যানেজার ফিডা হাসান, এসিস্টেন্ট ম্যানেজার মনিরুল ইসলাম ও হাবীবুর রহমান নামের তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ।

ঘটনায় আহতরা হলেন, গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার সফিপুর পশ্চিমপাড়া এলাকার শামসুল আলমের স্ত্রী আফরোজা আক্তার মুক্তা (৪৫), মেয়ে শারমিন খান (২৬), পলিন খান (১৮), রুদ্রা খন (০৮), রিয়ান খান (০৩), নিরাপত্তাকর্মী আব্দুর রহমান (২০), আব্দুল খালেক (৪০), সাজ্জাদ (২২), মোতালেব (২৫), আমিনুর (২৬), মিজান (২৮), সোহেল (৩২) এবং এবাদত (২৬)। এরা সকলেই নির্মিত ৮তলা ভবনে থাকতো।

পুলিশ জানিয়েছে, উপজেলার সফিপুর এলাকার ইবনেসিনা ফার্মাসিউটিক্যাল ইন্ডাষ্ট্রিজ লিমিটেড এর সাথে গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার সফিপুর পশ্চিমপাড়া এলাকার মৃত. আব্দুল মান্নান খানের ছেলে শামসুল আলম খানের সাথে দীর্ঘদিন ধরে ১৫১ শতাংশ জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। বিরোধপূর্ন ওই জমি দীর্ঘদিন পতিত থাকার পর গত বিএনপি জোট সরকারের সময়ে ইবনেসিনা কর্তৃপক্ষ দখলে নেয় এবং সেখানে বেশ কিছু স্থাপনা নির্মাণ করেন। তবে ওই জমিতে আদালতের ১৪৪ ধারা সহ একাধিক মামলা রয়েছে।

গত ৬জুন সফিপুর পশ্চিমাপাড়া এলাকার ব্যবসায়ী শামসুল আলম খানের লোকজন কারখানার ভাউন্ডারী ভেঙ্গে ওই জমি দখলে নেন এবং ওই জমির উপর নির্মিত ৮তলা ভবনে পরিবার নিয়ে বসবাস শুরু করেন।

গতকাল শনিবার সকালে ইবনেসিনা ফার্মাসিউটিক্যাল ইন্ডাষ্ট্রিজ এর শ্রমিকরা ওই ভবনে হামলা চালায়। এসময় ভবনে অবস্থান করা শামসুল আলমের পরিবার ও নিরাপত্তাকর্মীদের বেধরক মারপিট করে ভবন থেকে বের করে দেয় এবং ভবনটি দখলে নিয়ে নেয়। ভবন দখলের পর সেখানে ইবনেসিনা ফার্মাসিউটিক্যাল এর ষ্টাফ কোয়ার্টার লিখিত একটি সাইনবোর্ড টাঙ্গিয়ে দেয়। মারপিটের ঘটনায় শামসুল আলম পরিবারের ৫জন ও নিরাপত্তার্মী সহ ১৩জন আহত হয়। আহতদের স্থানীয়রা উদ্ধার করে কালিয়াকৈর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেছেন।
এদিকে, হামলা ভাংচুরের খবর পেয়ে কালিয়াকৈর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছলে হামলাকারী ওই স্থান ত্যাগ করে।

এব্যাপারে ইবনেসিনা ফার্মাসিউটক্যিাল ইন্ডাষ্ট্রি লিমিটেড এর ব্যবস্থাপক শাহ-আলম জানান, শামসুল আলম খান নামের জনৈক এক ব্যক্তি কারখানার ষ্টাফ কোয়ার্টার এর ভেতর ১৫১ শতাংশ জমি নিজের বলে দাবী করে প্রায় ২০/৩০জন সন্ত্রাসী নিয়ে এসে হামলা চালায়। হামলা চালিয়ে তারা কারখানার ভেতর সিসি টিভি ক্যামেরা, চেয়ার টেবিল ও কিছু জানালার গ্লাস ভাংচুর করে।

বিষয়টি অস্বীকার করে শামসুল আলম খান জানান, ওই জমিতে আমি ৮তলা ভবন নির্মাণ করে সেখানে পরিবার নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বসবাস করছি। ওই ভবনের ৫ম তলার কাজ করার সময় কারখানার ২২জন কর্মকর্তা-কর্মচারী আমার কাজ বন্ধ করে দেয় এবং ৫০ লাখ টাকা চাঁদা দাবী করে। ঘটনায় গত ০৬-০৭-২০১৬ইং তারিখে কালিয়াকৈর থানায় একটি মামলা দায়ের করি। মামলা নং (০৬)। মামলার জেরে ক্ষিপ্ত হয়ে গতকাল শনিবার ভোরে আবার তার ভবনে হামলা চালায়। এঘটনায় থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

কালিয়াকৈর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আব্দুল মোতালেব মিয়া জানান, ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে এবং তিনজনকে আটক করা হয়েছে।