• আজ ১২ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

শক্তিশালী ভূমিকম্পের ঝুঁকিতে বাংলাদেশ!

১০:১৮ অপরাহ্ন | শনিবার, জুলাই ১৬, ২০১৬ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি, স্পট লাইট

প্রযুক্তি ডেস্ক, সময়ের কণ্ঠস্বর – বাংলাদেশের ভূপৃষ্ঠের নীচে সম্ভবত বড় ধরনের ভূমিকম্প দানা বাঁধছে যা বাংলাদেশ এবং ভারতের পূর্বাঞ্চলের ১৪ কোটি মানুষের জীবন বিপন্ন করে দিতে পারে। সাম্প্রতিক এক গবেষণা থেকে জানা গেছে এই তথ্য।

ন্যাচার জিওসায়েন্সে প্রকাশিত এক জার্নাল থেকে জানা গেছে, ভূমিকম্পটি খুব দ্রুত ঘটার আশঙ্কা না থাকলেও সেটা অবশ্যম্ভাবী। আর ঠিক কবে এটি ঘটতে পারে তা জানতে আরো গবেষণার প্রয়োজন বলে জানিয়েছেন গবেষণা দলের প্রধান মিশায়েল স্টেকলার। নিউ ইয়র্কের কলম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূতত্ত্ববিদ তিনি।

সম্ভাব্য ভূমিকম্পের কেন্দ্রবিন্দুর একশ’ কিলোমিটার ব্যাসের মধ্যে বাংলাদেশ এবং ভারতের পূর্বাঞ্চলের ১৪ কোটি মানুষ বসবাস করে যা বিশ্বের অন্যতম দরিদ্র এবং সবচেয়ে ঘনবসতিপূর্ণ এলাকা বলে জার্নালে উল্লেখ করা হয়েছে।

বাংলাদেশের বিষয়ে বিশেষভাবে উল্লেখ করতে গিয়ে বলা হয়েছে যে, সস্তা নির্মাণ সামগ্রী দিয়ে তৈরি অপরিকল্পিত ভবনসহ ভারি শিল্প, বিদ্যুৎকেন্দ্র এবং প্রাকৃতিক গ্যাসক্ষেত্র ভূমিকম্পে ধ্বংস হয়ে যেতে পারে।

ban-ear

জার্নালটির সহ-লেখক ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূতত্ত্ববিদ সৈয়দ হুমায়ুন আক্তার এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন, সম্ভাব্য ভূমিকম্পের ফলে বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকার এত ক্ষতি হবে যে সেটি বসবাসের অনুপোযোগী হয়ে যেতে পারে৷ মোট ৬২ হাজার বর্গ কিলোমিটার এলাকা ভূমিকম্পের ঝূঁকির মুখে আছে বলেও জানান তিনি।

গবেষকরা তাদের গবেষণা কাজে কম্পিউটার মডেল ব্যবহার করে গত দশবছর ধনরে প্রাপ্ত বিভিন্ন তথ্য বিশ্লেষণ করেছেন৷ এতে দেখা যাচ্ছে, বাংলাদেশ এবং ভারতের পূর্বাঞ্চলের ভূগাঠনিক প্লেট উত্তর-পূর্ব দিকে সরে গিয়ে মিয়ানমারের ভূগাঠনিক প্লেটে চাপ সৃষ্টি করছে, ফলে সৃষ্টি হচ্ছে অস্থিরতা।

উল্লেখ্য, ভারত মহাসাগরে ২০০৪ সালে ভূমিকম্প এবং সুনামিতে প্রায় হারায় ২ লাখ ৩০ হাজারের মতো মানুষ।

ব্যারিস্টার রফিক-উল হক আর নেই

শনিবার, অক্টোবর ২৪, ২০২০

গ্লোবের ভ্যাকসিন নিতে নেপাল আগ্রহী

বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ২২, ২০২০

Potato আলুর দাম কমছে

বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ২২, ২০২০