‘বিএনপির উচিত সরকারকে নৈতিকভাবে সহযোগিতা করা’


❏ রবিবার, জুলাই ১৭, ২০১৬ Breaking News, জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বর – সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ মোকাবেলায় বিএনপির জাতীয় ঐক্যের আহ্বান সন্ত্রাসীদের বাঁচানোর এক ধরনের কৌশল বলে দাবি করেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ।

রোববার সকালে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউতে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি এ দাবি করেন।

মাহবুব উল আলম হানিফ বলেন, বিএনপির জাতীয় ঐক্যের ডাক সন্ত্রাসীদের বাঁচানোর জন্য এক ধরনের কৌশল মাত্র। আন্দোলনের টানা ৯০ দিন মানুষ পুড়িয়ে যে অপকর্ম করেছে সেটা ঢাকার জন্যই তারা এখন এ কৌশলের আশ্রয় নিয়েছে।

তিনি বলেন, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ ইস্যুতে দেশবাসী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে রুখে দাঁড়িয়েছে। আর এই সময় বিএনপির জাতীয় ঐক্যের ডাক দিয়েছে তার কোনো প্রয়োজন নেই। আর তাই বিএনপির উচিত সরকারকে নৈতিকভাবে সহযোগিতা করা।

hanif-awa

আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নতুন ভবন নির্মাণ কাজ শুরু হয়েছে এদিন। এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন দলটির সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও গণপূর্তমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন, কোষাধ্যক্ষ এইচএন আশিকুর রহমান প্রমুখ।

আওয়ামী লীগের নতুন কার্যালয় প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আমাদের কেন্দ্রীয় কার্যালয় অত্যাধুনিক করার প্রক্রিয়া আজ শুরু হয়েছে। যতদিন পর্যন্ত অত্যাধুনিক ভবন নির্মাণ হবে না ততদিন পর্যন্ত সহযোগী ও ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনগুলো যেন তাদের কার্যক্রম একই ভবন থেকে পরিচালিত করতে পারে তার জন্য আমরা একটি ভবন খুঁজছি। আশাকরি খুব শিগগিরই এর সমাধান হবে।

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও গণপূর্তমন্ত্রী মোশাররফ হোসেন বলেন, ৬ দশমিক ৯ কাঠা জমির উপর আমাদের নতুন ভবনটি নির্মাণ হবে। এটি আধুনিক সুযোগ-সুবিধাসংবলিত দৃষ্টিনন্দন ১০তলা বিশিষ্ট হবে। এতে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের জন্য আলাদা ফ্লোরের ব্যবস্থা করা হবে। এছাড়াও এ ভবনে একটি কনফারেন্স রুম করা হবে যার ধারণক্ষমতা হবে সাতশত থেকে এক হাজার।

তিনি বলেন, প্রায় ১০ কোটি ব্যয়ে ২০১৮ সালের ডিসেম্বর নাগাদ ভবনটির নির্মাণ কাজ শেষ হবে।

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন