জেলে ট্রলারে জলদস্যুদের হামলা, নিহত ১ আহত ২০


❏ সোমবার, জুলাই ১৮, ২০১৬ দেশের খবর, বরিশাল

111


এস আই মুকুল, ভোলা প্রতিনিধিঃ

বঙ্গোপসাগরে এফ.বি শারমিন নামক মনপুরার একটি মাছ ধরার ট্রলারে জলদস্যুদের হামালার ঘটনা ঘটে। এতে জলদস্যুদের ছোঁড়া গুলিতে ট্রলারে থাকা ১ জেলে নিহত ও ২০ জেলে আহত হয়েছে বলে জানা যায়। রবিবার রাত সাড়ে তিনটার সময় চট্টগ্রামের গ্যাস ফিল্ড সংলগ্ন সাগর মোহনায় এই হামলার চালায় জলদস্যুরা।

ঘটনা সূত্রে জানা যায়, জলদস্যুদের ছোঁড়া গুলিতে মহসিন (৪৫) নামের এক জেলে নিহত হয়। নিহতের বাড়ী ভোলা জেলার মুনপুরা উপজেলার ৩ নং ওয়ার্ড উত্তর সাকোচিয়া ইউনিয়নের ২ নং ওয়ার্ডের আনন্দবাজার এলাকায়। জলদস্যুদের হামলায় আহত হয়েছে মহিউদ্দিন, হোসেন, সাহেব আলী, জাহাঙ্গীর, নূরে আলম, হালিম মাঝি, মালেক মাঝি, বশির মাঝি, রফিক মাঝি, শাহাবুদ্দিন মাঝি, মনির, শহিদ, জাফর, কালাম, হাসান, মান্নান, ফজলু, সুলতান মাঝি, রহমান ও জামাল। এদের বাড়ী মনপুরা উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে।

ট্রলারে থাকা বশির সারেং মুঠোফোনে জানায় রবিবার সাড়ে তিনটায় চট্টগ্রামের গ্যাস ফিল্ড সংলগ্ন সাগর মোহনায় মাছ ধরা অবস্থায় জলদস্যুরা এলোপাথারি গুলি চালায়। এতে ট্রলারে থাকে মহসিন গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যায়। পরে জলদস্যুরা ট্রলারে উঠে সকল জেলেদের মারধর করতে থাকে। তখন ট্রলারে থাকা জেলেরা সাগরে পড়ে যায়।

এক পর্যায়ে জলদস্যুদের পায়ে ধরে বশির সারেং সাগরে পরে যাওয়া মাঝিদের ট্রলারে উঠিয়ে নেয়। জলদস্যুরা ট্রলারে থাকা সকল জেলেকে ট্রলারের ভিতরে আটকে রাখে। পরে তাদেরসহ জলদস্যুরা সমুদ্রে মাছ ধরা অন্য ট্রলারে ডাকাতি করে। ডাকাতি শেষে ট্রলারে মাছ, জাল ও ইঞ্জিন খুলে নিয়ে যায়। ট্রলারটি ভাসতে ভাসতে হাতিয়ার কাছে চলে আসে। ট্রলারটি নোঙ্গর করা অবস্থায় থাকলেও এখন পর্যন্ত কোষ্টগার্ড উদ্ধার করতে আসেনি।

এ ব্যাপারে হাতিয়া কোষ্টগার্ডের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মুঠোফোনে জানান কোষ্টগার্ড ও নৌবাহিনীর সমন্বয়ে জেলেদের উদ্ধারের কাজ চলছে।

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন