• আজ ১২ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

চুক্তিমতো ঘটকালির টাকা চাইতে গিয়ে কনে পক্ষের হাতে নির্মমভাবে খুন হলো ঘটক

১০:৫৩ পূর্বাহ্ন | মঙ্গলবার, জুলাই ১৯, ২০১৬ অকালমৃত্যু প্রতিদিন, অপরাধ, আলোচিত

মাগুরা প্রতিনিধি-

মাগুরায় ঘটকালিতে চুক্তির পাওনা টাকা চাইতে গিয়ে মারপিটের শিকার হয়ে মৃত্যু হয়েছে এক ঘটকের । ঘটকালির  ঝগড়ার জের ধরে আব্দুর রশিদ বিশ্বাস (৫০) নামে ঐ ঘটককে পিটিয়ে হত্যা করেছে মেয়ে পক্ষের লোকজন।

নিহত আব্দুর রশিদ ওই গ্রামের মৃত জীবন বিশ্বাসের ছেলে। সোমবার রাতে মহম্মদপুর উপজেলার ভবানিপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানান, বিয়ে দেওয়ার জন্য ঘটকালির সম্মানি হিসেবে আবদুর রশীদকে ফিরোজ মণ্ডলের কিছু টাকা দেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু প্রায় দুই মাস হতে চললেও ফিরোজ মণ্ডল ওই টাকা দেননি। এ নিয়ে দুজনের মধ্যে মনোমালিন্য চলছিল।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের ও তদন্তের বরাতে মহম্মদপুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রিয়াজুল ইসলাম সময়ের কণ্ঠস্বরকে জানান, কয়েকমাস আগে ঘটক আব্দুর রশিদের মধ্যস্থতায়  একই গ্রামের ফিরোজ মন্ডলের শ্যালিকার বিয়ে হয়।বিয়েতে  পূর্ব শর্তানুযায়ী আব্দুর রশিদ প্রতিবেশী ফিরোজের বাড়িতে রাত ৯ টার দিকে পাওনা ১০ হাজার টাকা চাইতে যান।

_jokhom

এ সময় দুই জনের মধ্যে তর্কবির্তকের এক পর্যায়ে ফিরোজ ও তার ভাইসহ আরও ৪-৫ জন উত্তেজিত হয়ে আব্দুর রশিদকে মারধর শুরু করলে রশিদ মাথায় গুরুতর আহত হন । এরপর  আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে প্রথমে মহম্মদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে অবস্থার অবনতি হলে মাগুরা সদর হাসপাতালে নেওয়ার পথে রাত সাড়ে ১০ টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

পরে উত্তেজিত গ্রামবাসী ফিরোজ মন্ডলকেও পিটিয়ে জখম করে। আহত ফিরোজকে মহম্মদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

এ ঘটনায় মহম্মদপুর থানা পুলিশ ফিরোজ ও ফরিদ নামের দুজনকে আটক করেছে। এছাড়া হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় সংঘাত এড়াতে এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে বলেও জানান ওসি।

দেড় ঘণ্টায় ভোট পড়েছে মাত্র ২৫টি!

শনিবার, অক্টোবর ১৭, ২০২০