চাচীকে ভালোবাসার ফাঁদে ফেলে বিয়ে, শেষ পর্যন্ত জেলহাজতে ভাতিজা

১:১৭ অপরাহ্ন | মঙ্গলবার, জুলাই ১৯, ২০১৬ আলোচিত

ভোলা প্রতিনিধি-  চাচা বিদেশে। থাকেন দুবাইয়ে। আর এই সুযোগে চাচীর সাথে ধীরে ধীরে গড়ে ওঠে প্রেম। আর এই প্রেমের ফাঁদে চাচীকে ফেলে করে ফেলে বিয়ে। আর এভাবে চাচীকে বিয়ে করে ভাতিজাকে জেলহাজতে যেতে হয়েছে। ঘটনাস্থল ভোলার চরফ্যাশন উপজেলার আবদুল্লাপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ শিবা গ্রাম।

জানা গেছে, মেয়ের (চাচী) বাবা নসু পাটোয়ারী বাদী হয়ে ছেলে (ভাতিজা), তার মা ও বন্ধুসহ তিনজনকে আসামি করে চরফ্যাশন থানায় একটি অপহরণ মামলা দায়ের করেন।prisonথানা পুলিশ অপহৃতা ও মামলার এক নম্বর আসামিকে ঢাকার ধানমণ্ডি থানা পুলিশের সহয়তায় উদ্ধার করে সোমবার আদালতে সোপর্দ করেন। পরে সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শিবলী নোমান খান মেয়েকে (চাচী) তার বাবার জিম্মায় দিয়ে ভাতিজা এরশাদকে জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

নসু পাটোয়ারী সাংবাদিকদের জানান, আবদুল্লাপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ শিবা গ্রামের গাজী মেস্ত্রীর ছেলে তছিরের সঙ্গে দুই বছর আগে তার (হাসানগঞ্জ হোসাইনিয়া দাখিল মাদ্রাসায় নবম শ্রেণীতে পড়ুয়া) মেয়েকে বিয়ে দেন।

ছয় মাস পর তার জামাতা দুবাই চলে যায়। চাচা বিদেশ থাকার সুযোগে ভাতিজা এরশাদ চাচীকে ভালোবাসার ফাঁদে ফেলে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয় এবং চাচীকে নিয়ে রাতের আঁধারে ঢাকায় পালিয়ে যায়।