পাবনায় হত্যা মামলায় ৫ জনের যাবজ্জীবন, ২ জন খালাস


আব্দুল লতিফ রঞ্জু, পাবনা প্রতিনিধি- দীর্ঘ ১১ বছর পর পাবনায় জীবন কুমার হত্যা মামলায় ৫ জনকে যাবজ্জীবন ও ২ জনকে খালাসের আদেশ দিয়েছেন আদালত। মঙ্গলবার দুপুর ২টার দিকে পাবনা বিশেষ জজ আদালতের বিচারক লিয়াকত আলী মোল্লা চূড়ান্ত এ আদেশ দেন।

সাজাপ্রাপ্তরা হলো-পাবনা পৌর সদরের শালগাড়িয়া এলাকার মানিক চন্দ্র, সুমন বসাক, আমিনুল ইসলাম, তাপস কুমার এবং সদর উপজেলার মালিগাছা গ্রামের ইমরান হোসেন।jidgeanmarমামলা সুত্রে জানা যায়, পূর্ববিরোধের জেরে ২০০৫ সালের ২৬ আগষ্ট দিবাগত রাতে পাবনা শহরের শালগাড়িয়া কালিবাড়ি ভাঙ্গা মন্দিরের সামনে থেকে জীবন কুমার সুত্রধরকে ধরে নিয়ে এডওয়ার্ড কলেজের শহীদ মিনারের কাছে লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে ও ছুরিকাঘাতে হত্যা করে আসামীরা। এ ঘটনায় ৭ জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করেন জীবন কুমারের পিতা দুলাল চন্দ্র। মামলার ৭ আসামীকে গ্রেপ্তার করে জেলহাজতে পাঠায় পুলিশ। এ ঘটনায় ৭ জনকে অভিযুক্ত করে ২০০৭ সালের ২২ জানুয়ারী আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মোজাম্মেল হক। এ মামলায় মোট ১০ জনের স্বাক্ষ্য গ্রহণ করা হয়।

দীর্ঘ শুনানী ও স্বাক্ষ্য প্রমাণ শেষে মঙ্গলবার ৫ জনকে যাবজ্জীবন, ৫ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ৩ মাসের কারাদন্ডের নির্দেশ দেন বিচারক। একইসাথে অপরাধ প্রমাণিত না হওয়ায় অপর দুইজনকে খালাসের আদেশ দেয়া হয়। মামলা জামিনে থাকলেও মঙ্গলবার রায় ঘোষণার সময় আসামীরা আদালতের কাঠগড়ায় উপস্থিত ছিলেন। রায় ঘোষণা শেষে আসামীদের জেলহাজতে পাঠানো হয়।

সরকার পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন বিশেষ পিপি অ্যাডভোকেট আব্দুর রকিব। আসামীপক্ষের আইনজীবি ছিলেন অ্যাডভোকেট খায়রুল আলম দুলাল, কাজী সাজ্জাদ ইকবাল লিটন, অ্যাডভোকেট সনৎ কুমার।

◷ ৭:১২ অপরাহ্ন ৷ মঙ্গলবার, জুলাই ১৯, ২০১৬ Breaking News, আলোচিত বাংলাদেশ