সংবাদ শিরোনাম
রংপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় শিক্ষার্থীর মৃত্যু | হাজী সেলিম ও তার ছেলের ‘অবৈধ সম্পদের’ তথ্য সংগ্রহ করছে দুদক | শায়েস্তাগঞ্জে দুই মাদরাসা ছাত্র নিখোঁজের ৪ দিন পর উদ্ধার | পটুয়াখালী র‌্যাবের হাতে দুই সমকামি তরুনী গ্রেপ্তার | মাদারীপুর আড়িয়াল খাঁ নদে সেতু নির্মানের দাবীতে মানববন্ধন | এবার এরদোয়ানের ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশ করলো ফরাসি ম্যাগাজিন, তীব্র প্রতিবাদ | মুসলিম দেশগুলোতে হস্তক্ষেপ বন্ধ করুন: ফ্রান্সকে রুহানি |  বাউফলে এলাকাবাসীর তোপের মুখে মরিচাধরা এক্সরে মেশিন ফেরত | ইতালিতে করোনায় প্রাণ গেলো আওয়ামী লীগ নেতার | জবিতে ৩০ অক্টোবর থেকে আন্তঃবিভাগ বির্তক প্রতিযোগিতা শুরু |
  • আজ ১২ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

১০ টাকার জন্য সেনা সদস্যের স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যা

৬:২৬ অপরাহ্ন | বৃহস্পতিবার, জুলাই ২১, ২০১৬ দেশের খবর, ময়মনসিংহ

kupiye.hotta

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি: ময়মনসিংহের ভালুকায় ১০টাকা কম দেয়ায় সুফিয়া খাতুন (৩৫) নামে এক সেনা সদস্যের স্ত্রীকে কোদাল দিয়ে কুপিয়ে খুন করেছে মমতাজ উদ্দিন (৩০) নামে এক যুবক। এ ঘটনায় নাফিস (৮) নামে সুফিয়ার ছোট ছেলেও আহত হয়েছে। ঘাতক মমতাজকে স্থানীয়রা আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে।

আজ বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার কাঠালী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহত নাফিসকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ময়মনসিংহ সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) ভর্তি করা হয়েছে। সে কাঠালী মাঠেরঘাট সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্র।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সকালে উপজেলার কাঠালী গ্রামের সেনা সদস্য শাহজাহানের স্ত্রী সুফিয়া খাতুন প্রতিবেশি মমতাজকে ভ্যান গাড়ি দিয়ে পাশের কালেঙ্গামোড় খবিরের দোকান থেকে দুই বস্তা চাল এনে দিতে বলেন। চাল আনার জন্য সুফিয়া একটি ভ্যানগাড়ি জোগাড় করে দেন এবং বলেন, এ জন্য তাকে ৪০ টাকা দেয়া হবে।

বাড়িতে চাল পৌছে দেয়ার পর ১০ টাকা কম দেয়ায় সুফিয়ার সাথে মমতাজের কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে পাশে থাকা কোদাল দিয়ে মমতাজ সুফিয়াকে কুপিয়ে আহত করে। এ সময় সুফিয়ার চিৎকারে নাফিস দৌড়ে ঘটনাস্থলে গেলে তাকেও কুদাল দিয়ে কুপিয়ে আহত করা হয়। পরে স্থানীয় লোকজন আহত মা ও ছেলেকে ময়মনসিংহ সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) নেয়ার পর সুফিয়া মারা যান।

এলাকাবাসি জানান, মমতাজ উদ্দিন শেরপুর জেলার নালিতাবাড়ি উপজেলার তন্তর গ্রামের সাবেক চেয়ারম্যান মৃত মফিজ উদ্দিনের ছেলে। মমতাজের মা হামেশা খাতুন (৬০) স্বামী মারা যাওয়ার পর ছেলেকে নিয়ে তার মেয়ে জামাই কাঠালী গ্রামের মো: আলমাস মিয়ার বাড়িতে বসবাস করে আসছে।

এদিকে এলাকাবাসি জানিয়েছে, মমতাজ উদ্দিন প্রায়ই বাড়ি থেকে উধাও হয়ে যেতো এবং কারো সাথে তেমন কথা বলতো না। এমনকি রাস্তায় চলাচল অবস্থায় অসংলগ্ন কথা বলতো।

ভালুকা মডেল থানার ওসি (তদন্ত) হযরত আলী জানান, নিহতের লাশ ময়না তদন্তের জন্য সিএমএইচ থেকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ঘাতক মমতাজকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। মামলার প্রস্তুতি চলছে।