দেশের বিভিন্ন স্থানে ৪৮ ঘণ্টায় বন্যা পরিস্থিতি অবনতির আশঙ্কা

২:২৮ অপরাহ্ণ | শনিবার, জুলাই ২৩, ২০১৬ আলোচিত বাংলাদেশ

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক- আগামী ৪৮ ঘণ্টায় দেশের বিভিন্ন স্থানে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হতে পারে বলে জানিয়েছে পানি উন্নয়ন বোর্ডের বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্র। বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্র জানিয়েছে, গতকাল শুক্রবারের অতি বর্ষণ ও আগামী ৭২ ঘণ্টা এই বৃষ্টিপাত অব্যাহত থাকার পূর্বাভাস রয়েছে।117066_1-500x293এদিকে, ব্রহ্মপুত্রের পানি চিলমারী পয়েন্টে বিপদসীমার ৪৬ সেন্টিমিটার ও ধরলার পানি সেতু পয়েন্টে বিপদসীমার ৩৪ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এ ছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় দেশের উত্তর ও উত্তরা-পূর্বাঞ্চলের বিভিন্ন নদ-নদীর পানি ১৫ থেকে ২৫ সেন্টিমিটার বেড়েছে।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের কর্মকর্তা ওমর ফারুক জানান, শুক্রবার সারা দেশে যে পরিমাণ বৃষ্টিপাত হয়েছে তা আগামীকাল রবিবার ও পরদিন সোমবার অব্যাহত থাকতে পারে। এই অবস্থায় নদ-নদীর পানি বৃদ্ধির আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন তিনি।

বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্রের তথ্য অনুসারে, শুক্রবার সন্ধ্যা থেকে আগামী ৪৮ ঘণ্টায় ব্রহ্মপুত্র ও যমুনা নদ-নদীসংলগ্ন কুড়িগ্রাম, জামালপুর ও বগুড়া জেলার নিম্নাঞ্চলের কিছু অংশে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হতে পারে।

সতর্কীকরণ কেন্দ্রের পর্যবেক্ষণাধীন ৯০টি স্থানের মধ্যে শুক্রবার ৫৫টির বৃদ্ধি এবং ৩১টি স্টেশনের পানি হ্রাস পায়।

তবে কুড়িগ্রাম ও নীলফামারীর সার্বিক বন্যা পরিস্থিতির আরো অবনতি হয়েছে। ব্রহ্মপুত্রের পানি চিলমারী পয়েন্টে বিপদসীমার ৪৬ সেন্টিমিটার ও ধরলার পানি সেতু পয়েন্টে বিপদসীমার ৩৪ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

গতকাল সুনামগঞ্জের সব পয়েন্টে পানি কমলেও সুরমা নদীতে বিপদসীমার ৬৪ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে পানি প্রবাহিত হচ্ছে। গত কয়েক দিনের টানা বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলে জেলার অনেক এলাকা প্লাবিত হয়।