• আজ বৃহস্পতিবার, ৫ কার্তিক, ১৪২৮ ৷ ২১ অক্টোবর, ২০২১ ৷

পাঞ্জাবে মুসলিম ও শিবসেনার মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষ, উত্তেজনা


❏ রবিবার, জুলাই ২৪, ২০১৬ আন্তর্জাতিক

4bk79d879c3147arhg_800C450


আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

ভারতের পাঞ্জাবে মুসলিম এবং হিন্দুত্ববাদী শিবসেনা সমর্থকদের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষ হয়েছে।

শুক্রবার পাঞ্জাবের ফাগওয়াড়া’র ওই ঘটনায় উভয়পক্ষ একে অপরের বিরুদ্ধে পাথর ছুঁড়লে পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। এতে স্থানীয় এক পুলিশ কর্মকর্তা আহত হয়েছেন। পুলিশ অবশ্য কোনোক্রমে পরিস্থিতি সামাল দিলেও সংশ্লিষ্ট এলাকায় উত্তেজনা রয়েছে।

আজ (শনিবার) গণমাধ্যমে প্রকাশ, কাশ্মিরের চলমান পরিস্থিতির জন্য অমরনাথ যাত্রা বিঘ্নিত হওয়ায় গত কয়েকদিন ধরে শিবসেনা নেতা-কর্মীরা ফাগওয়াড়াতে পাকিস্তান বিরোধী স্লোগান দিয়ে বিক্ষোভ দেখায়। তারা মুসলিমদের টার্গেট করে এবং বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় এক মুসলিম ব্যক্তির দোকানের দেওয়ালে ‘পাকিস্তান মুর্দাবাদ’ লিখে দেয়। শিবসেনার এ ধরণের পদক্ষেপের বিরুদ্ধে শুক্রবার মুসলিমরা বিক্ষোভ দেখায়।

অন্যদিকে, শুক্রবার জুমা বারে শিবসেনার রাজ্য সহ-সভাপতি ইন্দ্রজিত কারোয়ালের নেতৃত্বে এক মিছিল বেরোয় এবং তারা পাকিস্তান বিরোধী স্লোগান দেন। এ সময়  মুসলিমরা স্থানীয় জামে মসজিদের শাহী ইমামের নেতৃত্বে একটি দোকানের সামনে ‘পাকিস্তান মুর্দাবাদ’ লেখার প্রতিবাদে বিক্ষোভ দেখাছিলেন। দুই গোষ্ঠী মুখোমুখি হলে পরস্পরের বিরুদ্ধে মন্তব্য ছুঁড়ে দেয়। বিষয়টি চরমে উঠলে পরস্পরের মধ্যে পাথর ছোঁড়া শুরু হয়।

এ সময় স্থানীয় শিখ সম্প্রদায়, দলিত তথা আদি-ধর্মী এবং বাল্মিকি সম্প্রদায়ের মানুষজন মুসলিমদের পাশে দাঁড়ায়। পুলিশ ব্যারিকেড দিয়ে দুই পক্ষকে আলাদা করে দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ সুপার অজিন্দর সিং এবং ডিএসপি হারকানওয়ালপ্রীত চাহাল বিশাল পুলিশ বাহিনী নিয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। পরে সিনিয়র পুলিশ সুপার রাজিন্দর সিং এবং ডেপুটি কমিশনার যশকিরণ সিং ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। যে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে গোটা এলাকায় ব্যাপক পুলিশ ফোর্স মোতায়েন করা হয়েছে।

মুসলিমদের অভিযোগের ভিত্তিতে শিবসেনার রাজ্য সহ-সভাপতি এবং অন্য ৬ জনের বিরুদ্ধে পুলিশ মামলা দায়ের করেছে। অন্যদিকে, শিবসেনার রাজ্য সভাপতি যোগ রাজ  আজ শনিবার ফাগওয়াড়াতে বনধের ডাক দিয়ে পুলিশের এসপি এবং ডিএসপি’র বদলি দাবি করেছেন।

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন