চাটমোহর পৌর সদরের রাস্তাগুলোর বেহাল দশা: সীমাহীন দূর্ভোগ জনসাধারনের

৫:৪৬ অপরাহ্ন | রবিবার, জুলাই ২৪, ২০১৬ দেশের খবর, রাজশাহী

আব্দুল লতিফ রঞ্জু, পাবনা প্রতিনিধি- পাবনার চাটমোহর পৌর সদর এলাকার রাস্তাঘাট গুলোর বেহাল দশার সৃষ্টি হয়েছে। ফলে প্রতিনিয়ত সীমাহীন দুর্ভোগে পড়তে হচ্ছে রাস্তায় চলাচল কারী সাধারন মানুষের।

শহরের রাস্তাগুলো ভেঙ্গেচুড়ে, খানা খন্দের কারণে এসব রাস্তা পৌরবাসীর জন্য মরণ ফাঁদে পরিণত হয়েছে। পৌর এলাকায় রাস্তা দিয়ে চলাচল করতে গিয়ে প্রায়শই দুর্ঘটনার শিকার হতে হচ্ছে পথচারীদের ও স্কুল-কলেজ গামী শিক্ষার্থীদের। যার ফলে সীমাহীন দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে পৌরবাসীকে।pabnaঅনুসন্ধানে দেখা গেছে, পৌর সদরের প্রায় সকল রাস্তা দীঘদিন ধরে মেরামত না করার ফলে বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। একটু বৃষ্টি হলেই সেখানে পানি জমে থাকে। বাসষ্ট্যান্ড এলাকা থেকে শুরু করে হাসপাতাল গেট পর্যন্ত রাস্তাটি যান চলাচলের জন্য প্রায় একেবারেই অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। খুব বেশি প্রয়োজন ছাড়া বা কেউ অসুস্থ না হলে এই রাস্তা দিয়ে চলাচল করেন না। প্রায়শই ঘটছে ছোট বড় দূর্ঘটনা।

অথচ এই রাস্তারগুলোর পাশেই দু’টি কিন্ডার গার্ডেন স্কুল, চাটমোহর ডিগ্রি (অনার্স) কলেজ, পোস্ট অফিস, থানা, হাসপাতাল, মসজিদ থেকে শুরু করে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ অফিস রয়েছে। এছাড়াও প্রতিটি অলি গলির অবস্থাও করুণ। ড্রেনেজ ব্যবস্থা ভালো না থাকার কারণে একটু বৃষ্টি হলেই হাঁঁটু পানি জমে থাকে রাস্তাগুলিতে। পানি জমার ফলে মশার উৎপাত বেড়েছে আশংকাজনক হারে।

পৌর সদরের বাসষ্ট্যান্ড, হাসপাতাল এলাকা, ডিগ্রি কলেজ রোড, পুরাতন বাজার এলাকার থানা গেট, হাসপাতাল গেটসহ বিভিন্ন এলাকায় বৃষ্টির পানিতে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে। আর এই ভাঙ্গারাস্তা ও জলাবদ্ধতার কারণে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে বিভিন্ন স্কুল-কলেজ শিক্ষার্থী থেকে শুরু করে উপজেলার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা সাধারণ মানুষকেও। পৌর সভার এমন কোন রাস্তা নেই যেটা মানুষের চলাচলের জন্য উপযুক্ত। থানা প্রাচীর সংলগ্ন ফুটপাত দখল করে রাস্তার পাশে বিভিন্ন দোকান পাট বসার কারণে মানুষের চলাচলে বিঘœ ঘটছে বলে জানান ভুক্তভোগীরা।

এছাড়াও হাসপাতাল গেট এলাকা থেকে শুরু করে শহরের বিভিন্ন পয়েন্টে অটোভ্যানের দাপটে রাস্তা দিয়ে চলাচল করা দায় হয়ে পড়েছে। যত্রতত্র ভ্যান দাঁড় করিয়ে রাখার ফলে বেগ পেতে হচ্ছে পথচারীদের। এছাড়াও রাস্তার উপর নসিমন-করিমন দাঁড় করিয়ে রাখার ফলে রাস্তা দিয়ে পথচারীরা চলাচল করতে পারছে না। সবচেয়ে বাজে অবস্থা পুরাতন বাজারের সবজি বাজারে। খুব বেশি প্রয়োজন ছাড়া মূল বাজারে কেউ প্রবেশ করতে চান না। সীমাহীন দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে পথচলতি মানুষের। কোন প্রকার মেরামত দুরের কথা এখন পর্যন্ত কোন রাস্তা সংস্কার করেনি পৌর কর্তৃপক্ষ।

পুরাতন বাজারের সবজি বিক্রেতা বক্কার হোসেন ও বাবলু মিয়া জানান, একটু বৃষ্টি হলেই কাঁচা বাজারে পানি জমে কাদার সৃষ্টি হয়। কাদার কারণে ভয়ে কেউ কাঁচা বাজারে ঢুকতে চায় না। প্রতি বছর বর্ষাকাল এলেই বাজারের প্রায় সব দোকানদারই নিজেদের টাকা খরচ করে রাবিশ এনে দোকানের সামনে দেওয়া হয়। কিন্তু বৃষ্টির পানিতে ধুয়ে সেগুলো আর সেখানে থাকে না। সেখানে পুনরায় কাদার সৃষ্টি হয়। এতে করে বর্ষাকালে আমাদের ব্যবসার মন্দা ভাব যায়। তারা আরো বলেন, পৌরসভা থেকে বাজার ইজারদারের মাধ্যমে প্রতিনিয়ত খাজনা নিলেও কোন রকম সুযোগ সুবিধা আমরা পাই না।

এ ব্যাপারে চাটমোহর পৌর মেয়র মির্জা রেজাউল করিম দুলাল পৌর এলাকার রাস্তার অবস্থা খারাপ স্বীকার করে বলেন অর্থপ্রাপ্তি সাপেক্ষে দ্রুত রাস্তাগুলো সংস্কার করা হবে।

এসিল্যান্ডের যোগদান সালথায় নবাগত এসিল্যান্ডের যোগদান

সোমবার, অক্টোবর ২৬, ২০২০