গাইবান্ধায় বন্যার পানি বৃদ্ধি অব্যাহত


❏ রবিবার, জুলাই ২৪, ২০১৬ দেশের খবর, রংপুর

গাইবান্ধা প্রতিনিধি: বৃষ্টি ও উজান থেকে নেমে আসা পানির ঢলে গাইবান্ধার ওপর দিয়ে প্রবাহিত ব্রহ্মপুত্র, করতোয়া ও ঘাঘট নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে। নদীগুলোর পানি বিপদসীমার কাছাকাছি এসে গেছে। ফলে সার্বিক বন্যা পরিস্থিতির আরও অবনতি হয়েছে।

pani-biddhi

গত ২৪ ঘণ্টায় ঘাঘট নদীর পানি ২৩ সেন্টিমিটার, ব্রহ্মপুত্র ১৮ সেঃ মিঃ ও করতোয়ার পানি ১২ সেঃ মিঃ বৃদ্ধি পেয়েছে। এদিকে তিস্তা নদীর পানি ২৪.৫২ সেন্টিমিটারে অপরিবর্তিত অবস্থায় রয়েছে বলে আজ রবিবার পানি উন্নয়ন বোর্ডের কন্ট্রোল রুম জানায়।

ব্রহ্মপুত্র নদের পানি বৃদ্ধি পেয়ে গাইবান্ধার ফুলছড়ি তিস্তামুখঘাট পয়েন্টে এখন বিপদসীমার ৯ সেঃ মিঃ নিচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এতে ফুলছড়ি উপজেলার ৫টি ইউনিয়নের ২২টি গ্রামে নতুন করে পানি উঠতে শুরু করেছে।

বন্যাকবলিত গ্রামগুলো হচ্ছে- ফজলুপুর ইউনিয়নের কাউয়াবাঁধা, পশ্চিম নিশ্চিন্তপুর, চন্দনস্বর, পশ্চিম খাটিয়ামারী, উত্তর খাটিয়ামারী, পূর্ব খাটিয়ামারী, এরেন্ডাবাড়ী ইউনিয়নের তিনথোপা, পাগলার চর, বুলবুলি, উত্তর হরিচন্ডি, পশ্চিম ডাকাতির চর, আলগার চর, পশ্চিম জিগাবাড়ী, ধলি পাটাধোয়া, গজারিয়া ইউনিয়নের নামাপাড়া, গলনা, ভাজনডাঙ্গা, উড়িয়া ইউনিয়নের কালাসোনা, কাবিলপুর. রতনপুর, কঞ্চিপাড়া ইউনিয়নের সাতারকান্দি পূর্ব কঞ্চিপাড়া।

গাইবান্ধা জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে বন্যা ও নদীভাঙন কবলিতদের মাঝে ৫০ মেঃ টন চাল, নগদ ৪ লাখ টাকা সহ ৪ লাখ টাকার শুকনো খাবার বিতরণ করা হয়েছে।

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন