🕓 সংবাদ শিরোনাম

মানিকগঞ্জে র‍্যাবের অভিযান, ১৬ দালাল শ্রীঘরেঅভিনেতা মাহমুদ সাজ্জাদ মারা গেছেননাইম-মুশফিকের ফিফটিতে শ্রীলঙ্কাকে বড় লক্ষ্য দিলো বাংলাদেশশাহরুখ মোদীর দলে যোগ দিলেই মাদক হবে চিনির গুঁড়ো: মহারাষ্ট্রের মন্ত্রীপীরগঞ্জে সহিংসতা: স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিতে আদালতে সেই সৈকতবেলকুচিতে যমুনা নদী থেকে নিখোঁজ স্কুলছাত্রের লাশ উদ্ধারআবরার হত্যা : ২৫ আসামির মৃত্যুদণ্ড চায় রাষ্ট্রপক্ষভোলায় স্বামীকে কুপিয়ে হত্যা করল স্ত্রীপরীমণির রিমান্ড: ব্যাখ্যা দিতে এক সপ্তাহ সময় পেলেন ২ বিচারকরবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে আন্দোলনরত ২ শিক্ষার্থীর আত্মহত্যার চেষ্টা, মহাসড়ক অবরোধ

  • আজ রবিবার, ৮ কার্তিক, ১৪২৮ ৷ ২৪ অক্টোবর, ২০২১ ৷

কুমিল্লায় ছাত্রীদের মিছিলে ওপর ছাত্রলীগ ও যুবলীগের হামলা


❏ সোমবার, জুলাই ২৫, ২০১৬ আলোচিত বাংলাদেশ

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক –  কুমিল্লার চান্দিনায় মহিলা ডিগ্রি কলেজ জাতীয়করণ নিয়ে ছাত্রীদের বিক্ষোভ মিছিলে হামলা চালিয়েছে ছাত্রলীগ-যুবলীগ। এ ঘটনায় অন্তত ২৫ জন ছাত্রী আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন। তাদের মধ্যে তিনজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

h

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, কুমিল্লার চান্দিনায় মহিলা ডিগ্রি কলেজ জাতীয়করণের সিদ্ধান্ত পুনর্বহালের দাবিতে গতকাল ষষ্ঠ দিনের মতো বিক্ষোভ মিছিল করেন ছাত্রীরা। মিছিল নিয়ে শত শত ছাত্রী ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কাঠেরপুল এলাকায় জড়ো হন। তারা সড়কে যান চলাচল বন্ধ করে দেন। এ সময় পুলিশের সঙ্গে স্বেচ্ছাসেবক লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের কর্মীরা ছাত্রীদের পিটিয়ে আহত করে। এতে অন্তত ২৫ জন ছাত্রী আহত হন। আহতদের মধ্যে কলেজছাত্রী সাফিয়া আক্তার, তন্নী, সুমি, রোকেয়া আক্তার, মনিরা, মাহমুদা, তানজিনা, তাহমিনা, সারিকা, কলি, শারমিন, হাজেরা, মুক্তা, অর্পিতা, জেরিন, শরীফা, নুসরাত, আসমা, আম্বিয়া, আয়েশার নাম জানা গেছে।

আহতদের ১৩ জনকে চান্দিনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। গুরুতর আহত অবস্থায় রোকেয়া, সাথী ও শারমিনকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। কুমিল্লার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) আজিজুর রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। চান্দিনা মহিলা ডিগ্রি কলেজের শিক্ষার্থী তন্নী, তানিয়াসহ অন্য শিক্ষার্থীরা বলেন, ‘সারা দেশের ১৯৯টি কলেজ জাতীয়করণের তালিকায় উপজেলা সদরের চান্দিনা মহিলা ডিগ্রি কলেজের নাম অন্তর্ভুক্ত হওয়ার পর একটি মহল আমাদের কলেজের পরিবর্তে উপজেলা সদর থেকে প্রায় ২০ কিলোমিটার দূরবর্তী দোল্লাই নোয়াবপুর কলেজের নাম নির্ধারণ করা হয়েছে। আমরা কলেজ থেকে মৌন মিছিল নিয়ে বের হলে চান্দিনা থানা পুলিশ বাধা দেয়। প্রায় এক ঘণ্টা পুলিশের বাধার মুখে আমরা রাস্তায় অবস্থান করি। পুলিশের বাধা উপেক্ষা করে আমরা ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে পৌঁছলেই পুলিশ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের কর্মীরা লাঠিপেটাসহ আমাদের শারীরিক নির্যাতন করে।’

চান্দিনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত চিকিৎসক জাহাঙ্গীর আলম বলেন, ‘আহত অন্তত ২৫ জন ছাত্রীকে আমাদের হাসপাতালে আনা হয়েছে। এদের মধ্যে ভর্তি নেওয়া হয়েছে আটজনকে। আর তিনজনকে পাঠানো হয়েছে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে।’ এ ব্যাপারে চান্দিনা থানার ওসি রসুল আহমেদ নিজামী জানান, ‘ছাত্রীরা বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে মহাসড়ক অবরোধ করে। এ সময় তাদের মহাসড়ক থেকে সরাতে চেষ্টা করি। কিছু স্থানীয় লোকজনও আমাদের সাহায্য করেছে। স্বেচ্ছাসেবক লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের কিছু কর্মীও ছিল। কিন্তু ওখানে কোনো ছাত্রী আহত হয়নি।’ এ ব্যাপারে চান্দিনা মহিলা ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ মামুন পারভেজ জানান, ‘এডিসি এসেছিলেন। তিনি শিক্ষক ও ছাত্রীদের সঙ্গে কথা বলেছেন। ছাত্রীরা তাদের ওপর হামলার বিষয়ে তাকে জানিয়েছে। সুষ্ঠু তদন্ত করে হামলাকারীদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন তিনি।’

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন