সংবাদ শিরোনাম
  • আজ ১২ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ঝিনাইদহে ইউরিয়ার বস্তায় ওজন কমের অভিযোগ : খাসা হচ্ছে না ৫০টি ট্রাকের সার

১২:৩২ অপরাহ্ন | সোমবার, জুলাই ২৫, ২০১৬ খুলনা, দেশের খবর

আরাফাতুজ্জামান, ঝিনাইদহ প্রতিনিধি: ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে আপদকালীন (বাফার) সার গোডাউনে আসা ৩শ টন ইউরিয়ার প্রতি বস্তায় ৩ থেকে ৪ কেজি কম থাকার অভিযোগ পাওয়া গেছে। বিষয়টি জানাজানি হলে স্থানীয় সার ডিলাররা সার নিতে অপরাগতা প্রকাশ করেন। এছাড়া ডিলারদের আপত্তির কারণে গোডাউন কর্তৃপক্ষ ওই সার গ্রহণ করেনি। চট্টগ্রামের আগ্রাবাদের নবাব এন্ড কোম্পানি এই সার সরবরাহ করেছে বলে জানা যায়।

trak-atok

ডিলারদের অভিযোগের সূত্র ধরে গোডাউনে গিয়ে দেখা যায়, প্রায় ৫০টি সার বোঝাই ট্রাক সেখানে দাঁড়িয়ে আছে। এর মধ্যে ১৬টি ট্রাক নবাব এন্ড কোম্পানির বলে বাফার গোডাউন কর্তৃপক্ষ জানায়। তবে সেখানে থাকা শ্রমিক ও ডিলারদের দাবি, বেশিরভাগ ট্রাকই অভিযুক্ত প্রতিষ্ঠান নবাব এন্ড কোম্পানির। ডিলারদের অভিযোগ, দীর্ঘদিন সারগুলো বন্দরের ঘাটে পড়ে থাকায় এর গুণগত মান নষ্ট হয়ে গেছে। এছাড়া প্রতি বস্তায় ৩ থেকে ৪ কেজি সার কম দেওয়া হয়েছে বলেও অনুমান করছে বাফার কর্তৃপক্ষ।

কালীগঞ্জ বাফার সার গোডাউনের প্রধান হিসাবরক্ষক জামির হোসেন বলেন, ডিলারদের অভিযোগের ভিত্তিতে আমরা কয়েকটি ট্রাক থেকে সারের বস্তা মেপে এই অভিযোগের সত্যতা পেয়েছি। এরপরই আমরা সার আনলোড বন্ধ রেখেছি।

বাফার সার গোডাউনের ডিপো ইনচার্জ মাসুদ রানা বলেন, আমরা ডিলারদের অভিযোগের সত্যতা পেয়েছি। ইতোমধ্যে ট্রাক ভর্তি সার আমরা আটকে রেখেছি। সার প্রেরক প্রতিষ্ঠান জানিয়েছে তারা প্রতি বস্তায় ৫০ কেজি সার বাফার গোডাউন কর্তৃপক্ষকে বুঝিয়ে দেবে। তখনই আমরা এগুলো গ্রহণ করব।

চট্টগ্রামের নবাব এন্ড কোম্পানির অপারেশন অফিসার ওসমান আলীর টেলিফোনে বস্তায় সার কম থাকার বিষয়টি স্বীকার করে জানান, দীর্ঘদিন সারগুলো ঘাটে পড়ে থাকায় কিছু বস্তার সার আবহাওয়ার কারণে কমে যেতে পারে। তবে অভিযোগ পাওয়ার পর আমরা বাফার সার গোডাউন কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি, প্রতি বস্তায় ৫০ কেজি করে মেপে আমরা তাদের সার বুঝিয়ে দেব। তবে সারের গুনগত মান টিক আছে বলে তিনি দাবী করেন।

জানা গেছে, ঝিনাইদহ, কুষ্টিয়া, চুয়াডাঙ্গা ও মেহেরপুর জেলায় ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ বাফার গোডাউন থেকে সর সরবরাহ করা হয়। বিসিআইসির ২১৫ জন তালিকাভুক্ত ডিলার এই সার নিয়ে থাকেন। ডিলারদের মাঝে অর্ধেক নতুন এবং অর্ধেক পুরাতন সার বিতরণ করার পরামর্শ দিয়েছে মন্ত্রনালয়। কালীগঞ্জ বাফার গোডাউনের সার লোড আনলোডের ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান নবাব এন্টারপ্রাইজের শ্রমিক লিয়াতক আলী বলেন, কয়েক বছর ধরেই গোডাউনে নতুন সার ঢুকানো হয় না। সরাসরি বিভিন্ন ডিলারদের কাছে পৌছে দেওয়া হয়। এখনো গুদামে পুরানো জমাট বাঁধা সার পড়ে রয়েছে।