• আজ সোমবার, ৯ কার্তিক, ১৪২৮ ৷ ২৫ অক্টোবর, ২০২১ ৷

ফরিদপুরে ফসল উৎপাদনে কৃষি যন্ত্রের ব্যবহার শীর্ষক গবেষণা ও কৃষক সমাবেশ


❏ সোমবার, জুলাই ২৫, ২০১৬ ঢাকা, দেশের খবর

হারুন-অর-রশীদ, ফরিদপুর প্রতিনিধি: ইউএসএইড এর আর্থিক সহায়তায় সিসা-এম আই প্রকল্পের অধীনে বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট (বারি) ও আর্ন্তজাতিক গম ও ভুট্টা গবেষণা কেন্দ্র (সিমিট) বা বারি-সিমিট কর্মসূচী এবং স্থানীয় কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের যৌথ উদ্যোগে গত ১৪ জুলাই ফরিদপুর সদর উপজেলার হাটগোবিন্দপুর ও ২১ জুলাই বালিকান্দি উপজেলার চামটা গ্রামে ফসল (পাট) উৎপাদনে কৃষি যন্ত্রের (পিটিওএস/সিডার) ব্যবহার শীর্ষক গবেষণা ও উন্নয়ন কর্মকান্ডের উপর দুটি কৃষক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা এ এফ এম রুহুল কুদ্দুস এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানদ্বয়ে সভাপতিত্ত্ব করেন অগ্রবর্তী চাষী জনাব মোঃ ফজলুল হক (ইউ পি সদস্য) ও প্রশান্ত মন্ডল।

kisok-somabes

অনুষ্ঠানদ্বয়ে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন যথাক্রমে সরেজমিন গবেষণা বিভাগ, বিএআরআই, ফরিদপুর অঞ্চলের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড: মোঃ মহি উদ্দিন ও আঞ্চলিক কৃষি গবেষণা কেন্দ্র, বরিশালের মূখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড: মোঃ আব্দুল ওহাব। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন সরেজমিন গবেষণা বিভাগ, ফরিদপুরের উর্দ্ধতন বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড: সেলিম আহমেদ, সিমিট ফরিদপুরের হাব ম্যানেজার জনাব সুব্রত সরকার ও বালিয়াকান্দি উপজেলা কৃষি অফিসার মোঃ সাখাওয়াত হোসেন।

অনুষ্ঠানদ্বয়ে আরও উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় বিএআরআই, বিআরআরআই, এসআরডিআই, বিএডিসি, ডিএই, আইডিই ও বিভিন্ন বেসরকারী প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞানী, কর্মকর্তা ও প্রতিনিধিবৃন্দ। অনুষ্ঠানটির আয়োজন, সার্বিক ব্যবস্থাপনা ও ফসল উৎপাদনে কৃষি যন্ত্রের ব্যবহার শীর্ষক গবেষণা ও উন্নয়ন কর্মকান্ড সম্পর্কে বিস্তারিত বিবরণ তুলে ধরেন সরেজমিন গবেষণা বিভাগ, বারি এবং সিমিট, ফরিদপুরের বিজ্ঞানীবৃন্দ। তাঁদেরকে সহায়তা করেন বৈজ্ঞানিক সহকারী ও সংশ্লিষ্ট এলাকার উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তাবৃন্দ। অনুষ্ঠানদ্বয়ে প্রায় ৬০ জন করে কৃষক-কৃষাণী অংশ গ্রহন করেন।

অনুষ্ঠানদ্বয়ে ফসল (পাট) উৎপাদনে কৃষি যন্ত্রের (পিটিওএস/সিডার) ব্যবহার শীর্ষক গবেষণা ও উন্নয়ন কর্মকান্ড সরেজমিনে দেখানো ও এ সম্পর্কে বিস্তারিত বর্ননা দেন বারি-সিমিট এর বিজ্ঞানীবৃন্দ। অংশ গ্রহনকারী কৃষকগণের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন তারা। অনুষ্ঠানে অংশ গ্রহনকারী কৃষকগণ ফসল (পাট) উৎপাদনে কৃষি যন্ত্রের (পিটিওএস/সিডার) ব্যবহার শীর্ষক গবেষণা ও উন্নয়ন কর্মকান্ডের প্রতি কৌতুহলী হন এবং এর ব্যবহার, সুবিধা-অসুবিধা, খরচ ইত্যাদি সম্বন্ধে সম্যক ধারনা লাভ করেন। তাঁরা প্রচলিত পদ্ধতির সাথে এই আধুনিক পদ্ধতিতে জমি চাষ, বীজ বপন ও সারের উপরি প্রয়োগসহ কৃষি যান্ত্রিকিকরন এর তুলনা করে এগুলোর প্রতি আগ্রহ প্রকাশ করেন এবং আশা করেন যে কৃষক পর্যায়ে উক্ত কৃষি যন্ত্রের (পিটিওএস/সিডার) ব্যবহার শুরু হলে পাট উৎপাদন খরচ অনেকটা (২০-২৫%) হ্রাস পাবে এবং উৎপাদন (১০-১৫%) ও কৃষকের আয় (২০-২৫%) বাড়বে।

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন