নীলফামারীতে খাদ্যগুদাম কর্মকর্তার বিরুদ্ধে কৃষকের মানব-বন্ধন


❏ মঙ্গলবার, জুলাই ২৬, ২০১৬ দেশের খবর, রংপুর

নীলফামারী প্রতিনিধি- নীলফামারী জেলার ডোমারে চলতি মৌসুমে ধান ক্রয়ে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগে খাদ্যগুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আইয়ুব আলীর বিরুদ্ধে মানব বন্ধন করেছে সাধারন কৃষকরা।

আজ মঙ্গলবার বেলা ১১টায় ডোমার বাজার রেলগেট মোড়ে এ মানব-বন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় খাদ্যগুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আইয়ুব আলীর বিভিন্ন অনিয়ম ও দুর্নীতির চিত্র তুলে ধরে বক্তব্য দেন-উপজেলা কৃষকলীগের সভাপতি হাবিবুল হক দুলাল,কৃষক অমরজিৎ সিংহ,আতিকুর রহমান স্বপন,রতন কুমার রায় প্রমূখ।

index236


মানব-বন্ধনে বক্তারা বলেন, চলতি মৌসুমে আগামী ৩১জুলাই ২০১৬ পর্যন্ত সাধারন কৃষকদের নিকট থেকে ধান নেওয়ার কথা থাকলেও ডোমার খাদ্যগুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আইয়ুব আলী গত ১১জুলাই স্লিপধারী কৃষকদের বাদ দিয়ে উৎকোচ নিয়ে  রাঁতের আধাঁরে ফঁরিয়াদের(ধান ব্যবসায়ী) সঙ্গে আতাঁত করে নিন্ম মানের ধান ক্রয় করে সংগ্রহ অভিযান শেষ করেন। ১২ জুলাই থেকে সাধারন কৃষক (ধান বরাদ্ধের স্লিপধারি) খাদ্য গুদামে ধান নিয়ে আসলে গুদাম রক্ষক আইয়ুব আলী  কৃষকদের ধান ক্রয় শেষ হয়েছে বলে তাদের ফিরিয়ে দেন। কৃষকরা তাদের দেওয়া বরাদ্ধের বৈধ কাগজ দেখালে তাদের ধমক দিয়ে খাদ্য গুদাম থেকে তাড়িয়ে দেয়।

কৃষকদের অভিযোগ,ডোমার ও চিলাহাটি খাদ্য গুদামে চলতি মৌসুমে সরকারি ভাবে ২৩/০০টাকা প্রতি কেজি হিসাবে সাধারন কৃষকদের নিকট থেকে সরাসরি ধান ক্রয়ের কথা,সেই নিয়মকে তোয়াক্কা না করে গুদাম রক্ষক কর্মকর্তারা তাদের নিজ ইচ্ছামতো ফঁরিয়াদের(ধান ব্যবসায়ী)  নিকট থেকে ধান ক্রয় করেন। কৃষদের নিকট এখনও প্রায় ৪০০মে: টন ধানের স্লিপ রয়েছে বলে কৃষকরা জানান।

উল্লেখ্য যে, চলতি মৌসুমে ধান ক্রয়ে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগে গত বৃহস্পতিবার সাধারন কৃষকগন উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাবিহা সুলতানার মাধ্যমে জেলা প্রশাসককে লিখিত অভিযোগ দেন।

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন