বালিশচাপা দিয়ে শিশু হত্যা, ঘাতক চাচা পলাতক


❏ মঙ্গলবার, জুলাই ২৬, ২০১৬ খুলনা, দেশের খবর

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি: জেলার সদর উপজেলায় নয়দিনের শিশু কন্যাকে বালিশচাপা দিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। ঘটনার পর রিংকু খা নামে নিহত শিশুটির বড় চাচা পলাতক রয়েছে। উপজেলার কলমনখালী গ্রামে মঙ্গলবার বিকালে এ ঘটনা ঘটে। এদিকে শিশু হত্যার ঘটনাটি ধাপাচাপা দিতে স্থানীয় একটি প্রভাবশালী মহল উঠেপড়ে লেগেছে।hotta97

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, কলমনখালী গ্রামের আব্দুল মজিদ খাঁর ছেলে সাঈদ খা একই গ্রামের আনোয়ার হোসেনের মেয়ে আফরিনা খাতুনকে ভালোবেসে বিয়ে করে। এ বিয়েতে সাঈদের পরিবারের সবাই রাজি হলেও বড় ভাই রিংকু রাজি ছিলেন না। বিয়ের পর সাঈদ আফরিন দম্পতির কোলজুড়ে আসে এক কন্যা সন্তান। সন্তানটি নিয়ে তারা সুখেই ছিল। মঙ্গলবার বিকাল ৩টার দিকে মা আফরিন সংসারের কাজে ব্যস্ত ছিলেন। শিশুটির বাবা সাঈদ খাঁও বাড়িতে ছিলেন না। এ ফাঁকে তার বড় ভাসুর রিংকু খা ঘরে ঢুকে নয় দিনের শিশু বাচ্চাকে বালিশচাপা দিয়ে হত্যা করে পালিয়ে যায়।

নিহত শিশুর নানা আনোয়ার হোসেন অভিযোগ করেন, তার নয় দিন বয়সের নাতনিকে এভাবে হত্যা করা হবে তা কল্পনাও করতে পারেনি।

তিনি আরো জানান, এলাকার কিছু প্রভাবশালী ব্যক্তি থানায় যেতে বাধা দিচ্ছে।

এ ব্যাপারে এলাকার চেয়ারম্যান ফয়জুল্লাহ ফয়েজ জানান, শিশু হত্যার ঘটনা তিনি শুনেছেন। তবে বিস্তারিত কিছুই জানেন না।

সদর থানার ওসি হরেন্দ্রনাথ সরকার জানান, সদর উপজেলার কলমনখালী গ্রামে নয় দিন বয়সের এক শিশুর মৃত্যুর খবর শুনে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। তিনি বলেন, হত্যার ঘটনা সঠিক হলে অবশ্যই থানায় মামলা রেকর্ড করে আসামিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন