নিহত দুই জঙ্গির পর এবার পরিচয় মিললো আরও এক জঙ্গির


❏ বুধবার, জুলাই ২৭, ২০১৬ Breaking News, আলোচিত বাংলাদেশ, ফিচার

সময়ের কণ্ঠস্বর – কল্যাণপুরে জাহাজ বিল্ডিংয়ে পুলিশ-র‌্যাব ও ডিবির যৌথ অভিযানে নিহত নয়জনের মধ্যে তিনজনের পরিচয় পাওয়া গেছে। এরা হলেন জোবায়ের হোসেন, সাজ্জাদ রউফ ওরফে অর্ক ও সাব্বিরুল হক।

এদের মধ্যে জোবায়েরের বাড়ি নোয়াখালী সদর উপজেলার পশ্চিম মাইজদী গ্রামে, সাজ্জাদের বাসা রাজধানীর বসুন্ধরা এলাকায়। গ্রামের বাড়ি মানিকগঞ্জ সদরের পশ্চিম সেউতায়। সাব্বিরুল হকের বাড়ি চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলার ফুলগাজী পাড়ায়।

এদিকে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, নিহত জঙ্গিদের পরিচয় নিশ্চিত হতে ডিএনএ পরীক্ষা এবং জাতীয় পরিচয়পত্রের সঙ্গে ফিঙ্গার প্রিন্ট মেলানো হবে।

বুধবার দুপুরে নোয়াখালীর সুধারাম মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আনোয়ার হোসেন জানান, জোবায়ের গত ২৫ মে নিখোঁজ হন। তার বাবার নাম আব্দুল কাইয়ুম।

জোবায়ের নোয়াখালী সরকারি কলেজের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের অনার্স প্রথম বর্ষের ছাত্র। মৃতদেহ শনাক্ত করতে তার পরিবারের লোকজনকে ঢাকা পাঠানো হচ্ছে। পরবর্তীতে বিস্তারিত জানানো হবে।

9eb6c2b4afbf2822dac368844acb1ec0-34_136286

সাজ্জাদ রাজধানীর বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় (বাসা -৩০৪, রোড -১০, ব্লক-সি)। বাবার নাম তৌহিদ রউফ। প্রাথমিকভাবে জানা গেছে, তিনি নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের এমবিএর শিক্ষার্থী ছিলেন। রউফও নিখোঁজ ছিলেন। ভাটারা থানায় নিখোঁজের ব্যাপারে একটি জিডি করে তার পরিবার। জিডি নম্বর-৩৯২। র‌্যাবের নিখোঁজ তালিকায় তার নাম দুই নম্বরে আছে।

অপরদিকে, নিহত সাব্বিরুল হকের বাড়ি চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলার ফুলগাজী পাড়ায়। তার বাবার নাম আজিজুল হক। তিনি চট্টগ্রাম ইন্টারন্যাশনাল ইসলামিক ইউনিভার্সিটির ছাত্র ছিলেন। ছাত্র শিবিরের সঙ্গে জড়িত সাব্বিরুল হক ছয়মাস ধরে নিখোঁজ ছিলেন।

প্রসঙ্গত, সোমবার রাত থেকে মঙ্গলবার ভোর পর্যন্ত কল্যাণপুরে ৫ নম্বর সড়কে ‘জাহাজ বিল্ডিং’ নামের একটি ভবনের পাঁচ তলার ‘জঙ্গি’ আস্তানায় অভিযান চালায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।

পুলিশ বলছে, এতে নয়জন জঙ্গি নিহত হয়েছে। ওই ঘটনায় রাকিবুল হাসান ওরফে রিগ্যান নামে আরো এক জঙ্গি গুলিবিদ্ধ হয়ে আটক হয়। সে এখন ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন