• আজ সোমবার, ৯ কার্তিক, ১৪২৮ ৷ ২৫ অক্টোবর, ২০২১ ৷

গাইবান্ধায় প্রশিক্ষণ নেয় গুলশানে হামলাকারীরা


❏ শুক্রবার, জুলাই ২৯, ২০১৬ আলোচিত বাংলাদেশ
 সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক –  রাজধানীর গুলশানে হলি আর্টিজান রেস্টুরেন্টে হামলার আগে জঙ্গিরা গাইবান্ধার দুর্গম চরে প্রশিক্ষণ নেয়। এই প্রশিক্ষণ দিয়েছিল কল্যাণপুরে  নিহত জঙ্গি রায়হান কবির। সে নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন জেএমবির ঢাকা অঞ্চলের সমন্বয়কের দায়িত্ব পালন করত। আশুলিয়ায় পুলিশ চেকপোস্টে তল্লাশির সময় ছুরিকাঘাতে কনস্টেবল হত্যার ঘটনাতেও জড়িত ছিল এই রায়হান।
gulsan
গতকাল বৃহস্পতিবার ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে এই অষ্টম জঙ্গির পরিচয় প্রকাশ করে এসব তথ্য  জানিয়েছেন ঢাকা মহানগর পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের প্রধান অতিরিক্ত কমিশনার মনিরুল ইসলাম। প্রসঙ্গত, গত বছর ৪ নভেম্বর আশুলিয়ার বারুইপাড়া এলাকার একটি পুলিশ চেকপোস্টে তল্লাশির সময় জঙ্গিরা ছুরিকাঘাতে এক কনস্টেবলকে হত্যা ও চারজনকে আহত করে।
অতিরিক্ত কমিশনার বলেন, নির্বাচন কমিশনের ডাটাবেজ থেকে জঙ্গিদের (রায়হানসহ আট জন) পরিচয় নিশ্চিত হওয়া গেছে। এরা সবাই দুই থেকে আড়াই বছর আগে বাড়ি ছেড়ে চলে যান। জঙ্গিদের ভাষায় ‘হিজরত’ করেন। তিনি বলেন, রায়হান কবিরের ছদ্মনাম তারেক। সে আশুলিয়ার বারুইপাড়ায় পুলিশের ওপর হামলায় জড়িত ছিল এবং পুলিশের খাতায়      তার নাম লেখা রয়েছে তারেক বলে। তাকে পুলিশ খুঁজছিল।
মনিরুল ইসলাম বলেন, রায়হান কবির গুলশান হামলাকারীদের প্রশিক্ষক ছিল। গুলশানে হামলার আগে গাইবান্ধার সাদুল্লাপুরের একটি চরে সাতজনকে ট্রেনিং দেওয়া হয়েছিল, যাদের মধ্যে গুলশান হামলাকারীরাও ছিল। তাদের দুই প্রশিক্ষকের একজন এই রায়হান ওরফে তারেক। এ বছরের প্রথম দিকে জেএমবির কয়েকজন সংগঠক পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে মারা যাওয়ার পর সংগঠনটির ঢাকা অঞ্চলের সমন্বয়কের দায়িত্ব পালন করছিল সে।

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন