নারায়ণগঞ্জে পর পর দুই জনকে কুপিয়ে হত্যা , এলাকায় আতঙ্ক


❏ শুক্রবার, জুলাই ২৯, ২০১৬ আলোচিত

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধিঃ নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলায় শুক্রবার সন্ধ্যায় ফয়সাল (২৩) নামে এক ডকইয়ার্ড শ্রমিককে কুপিয়ে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা। এর আগে গত বৃহস্পতিবার রাতে মদনগঞ্জ পুলিশ ফাঁড়ির অদূরে ফরাজীকান্দা এলাকায় ব্যারিস্টার বাড়ির কেয়ারটেকার আতাউর রহমান (৪৫) কে সন্ত্রাসীরা কুপিয়ে হত্যা করে।

২৪ঘণ্টাই দুটি খুনের ঘটনায় এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। এলাকায় প্রভাব বিস্তারকে কেন্দ্র করে নবীগঞ্জ টি হোসেন গার্ডেন সংলগ্ন এলাকায় ফয়সালকে কুপিয়ে হত্যা করা হয় বলে অভিযোগ উঠেছে। নিহত ফয়সাল বন্দরের নবীগঞ্জ শান্তিবাগ এলাকার আবদুল রশিদের ছেলে। এ ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

kupiyeএলাকাবাসী ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ফয়সাল বন্দর ডকইয়ার্ডের একজন শ্রমিক। সম্প্রতি ওই ডকইয়ার্ড দখলকে কেন্দ্র করে হামলা ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এর সঙ্গে হত্যাকাণ্ডের যোগসাজশ থাকতে পারে। এ ছাড়া নবীগঞ্জ এলাকায় প্রভাব বিস্তার নিয়ে এলাকার বখাটে সন্ত্রাসীদের সঙ্গে দ্বন্দ্ব ছিল ফয়সালের। দ্বন্দ্বের জের ধরে শুক্রবার সন্ধ্যায় নবীগঞ্জ এলাকার সিদ্দিক মিয়ার ছেলে পনির, হানিফের ভাগিনা রফিকসহ ৮/৯ জন সন্ত্রাসী নবীগঞ্জ টি হোসেন গার্ডেনের সামনে ফয়সালকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে ফেলে রেখে যায়।

আহত অবস্থায় পথচারীরা তাকে হাসপাতালে নেয়ার পথে সে মারা যায়। নারায়ণগঞ্জ সহকারী পুলিশ সুপার (ক অঞ্চল) আবদুল্লাহ মাসুদ জানান, এলাকার প্রভাব বিস্তার নিয়ে ফয়সালকে খুন করা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। ফয়সালের বখাটে বন্ধুরা এর সঙ্গে জড়িত থাকতে পারে। লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। মামলার প্রস্তুতি চলছে। আসামী গ্রেফতারে তৎপর রয়েছে পুলিশ।

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন