🕓 সংবাদ শিরোনাম
  • আজ বুধবার, ৫ মাঘ, ১৪২৮ ৷ ১৯ জানুয়ারি, ২০২২ ৷

সেপ্টেম্বরে বাড়তে পারে গ্যাসের দাম, শুনানি আজ থেকে


❏ রবিবার, আগস্ট ৭, ২০১৬ জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বরঃ গ্যাসের দাম বাড়ানোর প্রস্তাবের ওপর আজ রোববার থেকে গণশুনানির আয়োজন করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (বিইআরসি)। এতে ছয়টি গ্যাস বিতরণ কোম্পানি কর্তৃক কমিশনে পাঠানো গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির প্রস্তাবের ওপর মতামত ও পরামর্শ নেয়া হবে। শুনানির পর মূল্য সমন্বয়ের নতুন আদেশ সেপ্টেম্বর থেকে কার্যকরের ঘোষণা দেয়া হতে পারে।

বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশনে (বিইআরসি) আগামী ১৮ আগস্ট পর্যন্ত এ শুনানি চলবে। শুনানির প্রথম দিনে গ্যাস ট্রান্সমিশন কোম্পানির (জিটিসিএল) প্রস্তাবের ওপর শুনানি অনুষ্ঠিত হবে।

এই শুনানি কোম্পানিগুলোর প্রস্তাবের যৌক্তিকতা প্রমাণের জন্য আহ্বান করা হলেও এর মাধ্যমে দামবৃদ্ধির আইনি প্রক্রিয়াই চূড়ান্ত করা হবে বলে জ্বালানি বিভাগ ও বিইআরসি সূত্রে জানা গেছে। তবে গ্যাসের দাম বৃদ্ধির প্রস্তাবের বিপরীতে আপত্তি-উদ্বেগ জানিয়ে আসছেন ব্যবসায়ী সংগঠন ও নাগরিক প্রতিনিধিরা। দাম বাড়ানোর প্রস্তাবের প্রতিবাদে আজ বিইআরসি কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ মিছিল করার ঘোষণা দিয়েছে গণসংহতি আন্দোলন।

bercজানা গেছে, গ্যাসের আপস্ট্রিম খরচ, সঞ্চালন ভাড়া এবং ভোক্তাপর্যায়ে গ্যাসের দাম বাড়ানোর প্রস্তাব দিয়ে গত ২৯ মার্চ থেকে ৩ এপ্রিল সময়ের মধ্যে আবেদন করে ছয়টি গ্যাস বিতরণ কোম্পানি। একই সময়ে ৩০ মার্চ গ্যাসের ট্রান্সমিশন চার্জ পুনর্নির্ধারণের জন্যও আবেদন করে জিটিসিএল। প্রস্তাব যাছাই বাছাই শেষে গত ১৩ জুলাই এই বিষয়ে গণ-শুনানির দিন ধার্য করে কমিশন। আজ জিটিসিএল’র প্রস্তাব নিয়ে শুনানির পর আগামীকাল ভোক্তা পর্যায়ে গ্যাসের মূল্যহার নিয়ে তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন এন্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানির প্রস্তাবের ওপর শুনানি হবে। ১০ আগস্ট পশ্চিমাঞ্চল গ্যাস কোম্পানি লিমিটেড, ১১ তারিখ বাখরাবাদ গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড, ১৪ আগস্ট কর্ণফুলী গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড, ১৬ আগস্ট জালালাবাদ গ্যাস ট্রান্সমিশন এন্ড ডিস্টিবিউশন সিস্টেম লিমিটেড, ১৭ আগস্ট সুন্দরবন গ্যাস কোম্পানি এবং ১৮ তারিখ গ্যাসের বাল্ক মূল্যহার নিয়ে পেট্রোবাংলা, বিজিএফসিএল, এসজিএফএল ও বাপেক্সের আবেদনের ওপর শুনানির কথা রয়েছে।

এ বিষয়ে বিইআরসির পরিচালক (গ্যাস) এ কে এম মনোয়ার হোসেন আখন্দ বলেন, শুনানির সব প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। শুনানি শেষে আগামী ৯০ দিনের মধ্যে গ্যাসের মূল্যহার বিষয়ে কমিশন ঘোষণা দিবে।

প্রসঙ্গত, গত বছরের ১ সেপ্টেম্বরে গ্যাসের দাম গড়ে ২৬ শতাংশ বাড়ানো হয়। বিইআরসি আইন-২০০৩ অনুযায়ী এক বছরের মধ্যে দুই বার দাম বাড়ানোর বিধান না থাকলেও ৮ মাসের মাথায় আবারও দাম বাড়ানোর প্রস্তাব করে কোম্পানিগুলো।

এদিকে এই প্রস্তাবের বিরোধিতা করে গ্যাসের দাম না বাড়ানোর জন্য সরকারের প্রতি অনুরোধ জানিয়ে আসছে ব্যবসায়ীদের বিভিন্ন সংগঠন। নতুন করে গ্যাসের দাম বাড়ানো হলে শিল্প বিনিয়োগ মুখ থুবড়ে পড়বে বলে আশঙ্কা করছে ঢাকা চেম্বার অব কমার্স ইন্ডাস্ট্রি (ডিসিসিআই)। অপর দিকে নতুন করে গ্যাসের দাম বৃদ্ধি পেলে পরিবহন ও নিত্য পণ্যের বাজারে নৈরাজ্য দেখা দিবে বলে আশঙ্কা করছে বাংলাদেশ সিএনজি ফিলিং অ্যান্ড কনভারশন ওয়ার্কশপ ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন। দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিলে সব সিএনজি স্টেশন বন্ধ করে দেয়া হবে বলেও হুঁশিয়ারি দিয়েছেন সংগঠনের নেতারা।