• আজ শুক্রবার, ৭ মাঘ, ১৪২৮ ৷ ২১ জানুয়ারি, ২০২২ ৷

পর্ণগ্রাফী মামলায় ফেঁসে গেলেন কন্ঠশিল্পী মনির খান!


❏ রবিবার, আগস্ট ৭, ২০১৬ বিনোদন, স্পট লাইট

রাজবাড়ী প্রতিনিধি – নিজের ব্যক্তিগত ফেসবুক অ্যাকাউন্টে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আপত্তিকর ছবি পোষ্ট ও শেয়ার করার অভিযোগে কন্ঠশিল্পী মনির খানসহ দুই জনের বিরুদ্ধে পৃথক দুইটি মামলা করেছে পুলিশ। গতকাল শনিবার রাতে রাজবাড়ী সদর থানায় পর্ণগ্রাফী ও তথ্য প্রযুক্তি আইনে এ মামলা দুইটি দায়ের করেন থানার এসআই বদিয়ার রহমান।

এদিকে ফেসবুকে নিজের কোন একাউন্ট থাকার কথা পুরোপুরি অস্বীকার করেছেন কন্ঠশিল্পী মনির খান। এর আগে ওইদিন সন্ধ্যায় অপর মামলার আসামী ওয়ার্কশপ মিস্ত্রী আব্দুল খালেক সরদার (৩৫) কে সদর উপজেলার বাণীবহ বাজার থেকে গ্রেফতার করেন এসআই বদিয়ার।

সম্প্রতি ‘মনির খান সিঙ্গার’ নামের একটি ফেসবুক আইডি থেকে প্রধানমন্ত্রীর আপত্তিকর একটি ছবি পোষ্ট ও শেয়ার করার অভিযোগে শনিবার সন্ধ্যায় আব্দুল খালেককে পিটুনি দিয়ে পুলিশে দেন স্থানীয়রা। গ্রেফতারকৃত খালেক সরদার রাজবাড়ী সদর উপজেলার আলীপুর ইউনিয়নের আলাদীপুর গ্রামের হারান সরদারের ছেলে। সে বিএনপির একজন কর্মী বলে জানা গেছে।

 

monir-khan-singer

রাজবাড়ী সদর থানার এস.আই মোঃ বদিয়ার রহমান জানান, খালেক সরদারের ফেসবুক আইডি থেকে প্রধানমন্ত্রীর আপত্তিকর ছবি পোষ্ট ও শেয়ার করা হয়েছে। এ অভিযোগে শনিবার সন্ধ্যায় স্থানীয় লোকজন তাকে আটক করে থানায় খবর দেন। এরপর খালেককে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসা হয়।

রাজবাড়ী সদর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আবুল বাশার মিয়া বলেন, এ বিষয়ে শনিবার রাতেই থানার এস.আই মোঃ বদিয়ার রহমান বাদী হয়ে অভিযুক্ত খালেক সরদার ও কন্ঠ শিল্পী মনির খানের বিরুদ্ধে পর্ণগ্রাফী আইনের ৮এর ১,২,৩,৪ ধারায় এবং তথ্য প্রযুক্তি আইনের ৫৭ (২) ধারায় দুইটি মামলা দায়ের করেছেন।

monir-khan-fb-aco

ফেসবুক আইডিটি মনির খানের কি না এমন প্রশ্নে ওসি বলেন, এটি প্রযুক্তিগত বিষয়, যা তদন্ত চলছে। প্রাথমিকভাবে মনির খানের নামে আইডি হওয়ায় তাকেও আসামী করা হয়েছে।

রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার জিহাদুল কবির (পিপিএম) বলেন, এ ধরনের ন্যাক্কারজনক ঘটনার সাথে যারা জড়িত তাদের কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না।

গ্রেফতারকৃত খালেক সরদার জানান, রাজবাড়ী সদর উপজেলার বানীবহ বাজারে তার একটি ছোট ওয়ার্কশপের দোকান আছে। তিনি লেখাপড়া জানেন না। কয়েকদিন আগে তিনি একজনের মাধ্যমে একটি ফেসবুক আইডি খুলেছেন। ফেসবুকে কিভাবে ছবি পোষ্ট ও শেয়ার হয়েছে তা তিনি জানেন না বলে দাবি করেছেন।

এ বিষয়ে কন্ঠশিল্পী মনির খানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, ‘ফেসবুকে তার কোন আইডি নেই। এ বিষয়টি তিনি ইতিপূর্বে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে জানিয়েছেন।’