• আজ শুক্রবার, ২৪ অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ ৷ ৯ ডিসেম্বর, ২০২২ ৷

গাজীপুর মহাসড়কে অবৈধ বাজার উচ্ছেদ করছে ট্রাফিক পুলিশ


❏ মঙ্গলবার, আগস্ট ৯, ২০১৬ ঢাকা, দেশের খবর

পলাশ মল্লিক, স্টাফ রিপোর্টার: দেশের অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ন ভূমিকা রাখছে গাজীপুরজেলা। আর এ বিষয়টিকে গুরুত্ব দিলে গাজীপুরের যোগাযোগ ব্যবস্থা থাকার কথা সবচাইতে ভাল। কিন্তু বাস্তবে জেলার যোগাযোগ ব্যবস্থা এতটাই বাজে যে ঘন্টা পেড়িয়ে যায় কয়েক মিনিটের রাস্তা পাড়ি দিতে। জেলার ট্রাফিক পুলিশ শত চেষ্ঠা করেও যেন নিয়ন্ত্রনে রাখতে পারছে না মহানগরের ট্রাফিক ব্যবস্থা।

pulis

ঢাকার সাথে গাজীপুর মহানগরের যোগাযোগের জন্য রয়েছে একটি মাত্র মহাসড়ক। গাজীপুর চৌরাস্তা থেকে রাজধানীর কেন্দ্র পর্য্ন্ত যার দুরত্ব মাত্র ২৫ কিলোমিটার। যদি রাস্তাতে কোন প্রতিবন্ধকতা না থাকে তাহলে এ পথটুকু পাড়ি দিতে সময় লাগার কথা আঁধ ঘন্টা কিন্তু বাস্তবের চিত্রটা আলাদা। বর্তমানে চৌরাস্তা হতে ঢাকা পৌঁছাতে সময় লাগে তিন ঘন্টারও বেশি। আর বাড়তি সময় লাগার কয়েকটি কারণের মধ্যে এক নম্বর হলো মহাসড়কে উপর বাজার।

গাজীপুর ট্রাফিক পুলিশের অভিযানের ধারাবাহিকতায় কয়েকদিন আগে বোর্ডবাজার এলাকায় রাস্তা দখল করে ব্যবসা পরিচালনাকারীদের উচ্ছেদ করা হয়। কয়েকদিন যার সুফল পেয়েছে এ রাস্তা ব্যবহারকারী যাত্রী সাধারন। কিন্তু পরিতাপের বিষয় গতকাল বিকালে সরেজমিনে দেখা যায় কিছু সংখ্যক ব্যবসায়ী পুনরায় রাস্তার উপর তাদের পন্য সাজিয়ে বসেছে। ট্রাফিক পুলিশকে বুরো আঙ্গুল দেখিয়ে কাদের ইশারায় রাস্তার উপর এ বাজার ? গত কয়েক মাস ধরে চলমান গাজীপুর ট্রাফিক পুলিশের অভিযানে বেশ কয়েকবার রাস্তার উপর বাজার সড়ানোর কাজ করা হলেও স্থানীয় প্রভাবশালী মহলের কারণে পুনরায় বাজার বসতে শুরু করে রাস্তার উপর।

স্থানীয় সূত্রে পাওয়া তথ্য মতে সরকারদলীয় স্থানীয় কিছু নেতাদের ছত্রছায়াতেই রাস্তার উপর বসছে এ সকল বাজার। প্রতিদিন নির্দিষ্ট হারে চাঁদা নিয়ে রাস্তার উপর বসার সুযোগ করে দিচ্ছে স্থানীয় এ সকল নেতারা। ফলে জনসাধারনের কোন আপওিই কাজে আসছে না। দেশের যোগাযোগ ব্যবস্থার বারোটা বাজিয়ে নিজেদের পকেটভারী করা এ সকল স্থানীয় নেতাদের দেখার যেন কেউ নেই। মহাড়কের উপর বাজার গুলোকে তারা এক রকম পৈত্রিক সম্পত্তি মনে করে তাদের এ কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। আর তাদের কারণেই জরুরী কাজে বের হওয়া মানুষ গুলো ঘন্টার পর ঘন্টা সময় নষ্ট করে দাঁড়িয়ে থাকছে রাস্তাতে।

মহানগরের রাস্তার উপর বাজার সরানোর কাজটি যে সিটি কর্পোরেশেরন দেখার কথা তারা বিষয়টি যেন দেখেও না দেখার ভান ধরে আছে। গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন প্রতিষ্ঠার পর থেকে এ পর্য্ন্ত রাস্তার উপর থেকে বাজার সরানোর বিষয়ে উল্লেখ করার মতো কোন কার্যক্রমই সিটি কর্পোরেশন পরিচালনা করেনি। অথচ এ সকল অবৈধ বাজার সরানোর পুরো দায়িত্বটিই গাসিকেরই।
গাজীপুর মহাসড়কের উপর বাজারের বিষয়ে যোগাযোগ মন্ত্রী ওবায়েদুল কাদের বেশ কয়েকবার তাগিদ দিলেও গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন বিষয়টি যেন আমলেই নিচ্ছেনা। তবে মন্ত্রী মহাদয় যেদিন গাজীপুর পরিদর্শনে আসেন সেদিন কাকতালীয়ভাবে কোন বাজার চোখে পড়ে না রাস্তার উপর। কে বা কারা সড়ক দখলকারী এ সকল ব্যবসায়ীদের আগে থেকে তথ্য দিয়ে দেন তা একমাত্র তারাই বলতে পারবেন।

রাস্তার উপরে বাজারের বিষয়ে গাজীপুরের ট্রাফিকের সিনিয়র এএসপি সাখাওয়াত হোসেনের কাছে জানতে চাইলে তিনি সময়ের কন্ঠস্বরকে জানান, রাস্তার উপর বাজার, গাড়ি চলাচলে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করছে। ফলে গাড়ি চলাচল স্বাভাবিক রাখতে দায়িত্বরতদের বেগ পেতে হচ্ছে। আর তাই রাস্তা দখল করে বাজার বসানোর বিষয়ে কোন প্রকার ছাড় দেয়া হবে না। আগামীতে মহাসড়কের উপর থেকে অবৈধ বাজার এবং হকার উচ্ছেদ কার্যক্রম অব্যহত রাখার বিষয়ে কঠোর মনোভাব ব্যক্ত করেন। তিনি আরো জানান, মহাসড়কের গতি ঠিক রাখতে ইতি মধ্যে বেশ কিছু কর্মসূচী গ্রহন করেছি।