• আজ সোমবার, ৩ মাঘ, ১৪২৮ ৷ ১৭ জানুয়ারি, ২০২২ ৷

সৌদি আরবে কর্মহীন বাংলাদেশি শ্রমিক : পদক্ষেপ নিচ্ছে সরকার


❏ বুধবার, আগস্ট ১০, ২০১৬ Breaking News, প্রবাসের কথা, ফিচার, স্পট লাইট

প্রবাসের কথা ডেস্ক, সময়ের কণ্ঠস্বর – বাংলাদেশের অভিবাসী শ্রমিকদের একটি বড় অংশ কাজ করে সৌদি আরবে। সম্প্রতি সৌদি অর্থনীতিতে মন্দার জেরে হাজার হাজার শ্রমিককে ছাঁটাই করা হয়। এদের মধ্যে পাকিস্তান, ভারত, ফিলিপাইনসহ বাংলাদেশি শ্রমিকও রয়েছেন। অনেকে মাসের পর মাসে বেতন পাচ্ছেন না।

সৌদি আরবে হঠাৎ বেকার হয়ে পড়া ১৮শ বাংলাদেশি শ্রমিকের বিষয়ে উদ্যোগ নিচ্ছে বাংলাদেশ সরকার। এ বিষয়ে বেশ কিছু পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে। খবর বিবিসির।

শ্রমিকদের জন্য নির্মিত শিবিরগুলোতে তাদের দিন কাটছে প্রায় অভুক্ত অবস্থায়। সৌদিতে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত গোলাম মসীহ বিবিসিকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন, কর্মহীন এসব শ্রমিকদের বিষয়ে বিভিন্ন পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে।

ইতোমধ্যেই শিবিরগুলো ঘুরে শ্রমিকদের খাওয়া-দাওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন মসীহ।

সৌদি আরবের জেদ্দা, দাম্মাম ও রিয়াদ শহরে কর্মহীন হয়ে পড়েছেন প্রায় ১৮শ শ্রমিক। এই শ্রমিকদের অনেকে সেখানে প্রায় পনের থেকে বিশ বছর ধরে কাজ করছিলেন। এখন হঠাৎ করেই এরা কর্মহীন হয়ে পড়েছেন।

kormohin sromik

গোলাম মসীহ বলেছেন, মূলত দুটি কনস্ট্রাকশন কোম্পানির অব্যবস্থাপনার কারণে শ্রমিকরা মাসের পর মাস বেতন পাচ্ছেন না এবং বেকার হয়ে পড়ছেন। বেকার হয়ে যাওয়া শ্রমিকদের কর্মসংস্থান যেন দ্রুত হয় সে বিষয়ে চেষ্টা চালানো হচ্ছে।

আর যদি কোনও বেকার শ্রমিক দেশে ফিরে যেতে চায় তবে তার সব ব্যবস্থা নেবে বাংলাদেশ সরকার এমনটাই জানিয়েছেন সৌদিতে অবস্থানরত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত।

দাম্মামে আশ্রয় শিবিরে বাংলাদেশের অন্তত ১৪৪ জন শ্রমিক রয়েছেন যারা হঠাৎ বেকার হয়ে পড়েছেন। তাদেরই একজন মিজানুর রহমানসহ কজন বাংলাদেশি শ্রমিক এর আগে অভিযোগ করেছিলেন যে, অভুক্ত অবস্থায় তারা দিন কাটাচ্ছেন এবং দূতাবাস থেকে কেউ তাদের খোঁজখবর নিতে আসেনি।

তবে মঙ্গলবার রাতে শ্রমিকদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তারা জানান, বাংলাদেশ সরকার তাদের খাবার দাবারের ব্যবস্থাসহ আর্থিকভাবেও সহায়তা করছেন এবং তাদের সমস্যা সমাধানের আশ্বাস দিয়েছেন।

এর আগে গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, সৌদিতে কর্মহীন এশীয় শ্রমিকদের অনেকেরই দিন কাটছে একবেলা খেয়ে।

শ্রমিকদের বর্তমান অবস্থা ও ভবিষ্যত নিয়ে উদ্বেগের বিভিন্ন খবর প্রকাশের পর সৌদি কর্তৃপক্ষ জানায় যে, এশিয়ার বিভিন্ন দেশ থেকে আসা শ্রমিক, যারা সে দেশে বেকার রয়েছেন, তারা যাতে অন্য চাকরিতে ঢুকতে পারেন বা দেশ ত্যাগ করতে পারেন সে লক্ষ্যে বিধিনিষেধ শিথিল করা হবে।

সৌদিতে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত জানিয়েছেন, শ্রমিকদের নিয়ে বর্তমান এই সংকটের যেন দ্রুত সমাধান হয় সে বিষয়ে সৌদি সরকারও এখন উদ্যোগী হয়েছে এবং বিভিন্ন ধরনের পদক্ষেপ নিচ্ছে।