🕓 সংবাদ শিরোনাম
  • আজ শুক্রবার, ১৪ মাঘ, ১৪২৮ ৷ ২৮ জানুয়ারি, ২০২২ ৷

বিএনপি এ দেশের স্বাধীনতায় বিশ্বাসী না : প্রতিমন্ত্রী চুমকি


❏ বৃহস্পতিবার, আগস্ট ১১, ২০১৬ জাতীয়

রেজাউল সরকার(আঁধার), গাজীপুর প্রতিনিধি : মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি বলেছেন , রাজাকার আল-বদর বাহিনীর সন্তানদের নিয়ে বিএনপি নতুন কমিটি গঠন করে তারা প্রমাণ করেছে বিএনপি এ দেশের স্বাধীনতায় বিশ্বাসী না, তারা মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের চেতনার না, এদেশের মানুষ শান্তিতে থাকুক, এ দেশের উন্নতি হোক তারা এটা চায় না।

বৃহস্পতিবার বিকেলে জেলার কালীগঞ্জে শহীদ ময়েজউদ্দিন মিলনায়তনে উপজেলা প্রশাসন আয়োজিত সন্ত্রাস, নাশকতা ও জঙ্গিবাদবিরোধী কনভেনশনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।
প্রতিমন্ত্রী বলেন , যারা এদেশের স্বাধীনতার শত্রু, মা-বোনদের নির্যাতন করেছিল, মুক্তিযোদ্ধাদের হত্যা করেছিল, বুদ্ধিজীবীদের হত্যা করে দেশের স্বাধীনতা চিরতরে বন্ধ করতে চেয়েছিল, যাদের বিচার এই বাংলার মাটিতে হয়েছে, সেই রাজাকার আল-বদর বাহিনীর উত্তরাধীকারীদের নিয়ে গঠিত হয়েছে বিএনপির নতুন কমিটি।
kaliপ্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, ১৯৭৫ এর ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যা করা হয়েছে। খুনিরা চার বছরের শিশু রাসেলকে বাঁচতে দেয়নি। এই হত্যা কখনো জায়েজ হতে পারে না। কিন্তু পরবর্তীতে জিয়াউর রহমান ও তার দল ক্ষমতায় এসে সেই খুনিদের বাঁচাতে ইনডেমনিটি অধ্যাদেশ জারি করে। এই কালো আইন পরিষ্কার বুঝিয়ে দিয়েছে বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে কারা এদেশে সুবিধা ভোগ করেছে, অবৈধভাবে ক্ষমতায় টিকে থাকতে চেয়েছে, নিজেদের আখের গুছিয়েছে, দুর্নীতি ও সন্ত্রাস করেছে, এদেশে বাংলাভাইদের উত্থান ঘটিয়েছে, এদেশে সাম্প্রসায়িকতার বীজ বপন করেছে। কারা এদেশের মানুষের শান্তি বিনষ্ট করে দেশের উন্নয়নের ধারাকে বন্ধ করার জন্য নতুন করে জঙ্গিবাদের মদদ দিচ্ছে।
জেলা প্রশাসক এস এম আলমের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন  জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. গোলাম সবুর, জেলা আনসার ভিডিপি কমান্ডার ড. মো. সাইফুর রহমান (পিএএফ), উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. মোয়াজ্জেম হোসেন পলাশ।
উপজেলা যুব উন্নয়ন অফিসার শেখ নওশের আলী হিরা ও সহকারী শিক্ষা অফিসার মো. মনির হোসেনের যৌথ পরিচালনায় কনভেনশনে স্বাগত বক্তব্য রাখেন- উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. মনিরুজ্জামান। অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল গনি ভূইয়া, সহ-সভাপতি পরিমল চন্দ্র ঘোষ, পৌর মেয়র মো. লুৎফুর রহমান, উপজেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান আরমানসহ বিভিন্ন ইউনিয়নের চেয়াম্যানবৃন্দ।
জঙ্গিবাদ বিরোধী কনভেনশনে জেলা, উপজেলা, পৌর, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ছাড়াও মুক্তিযোদ্ধা, ইউপি সদস্য, মসজিদের ইমাম-মুয়াজ্জিন, স্কুল-কলেজ-মাদ্রাসার শিক্ষক-শিক্ষার্থী, মন্দিরের পুরোহিত, সাংবাদিক, আইনজীবি, ডাক্তার, বাড়ীর মালিক-ভাড়াটিয়া, উন্নয়নকর্মী, সুশীল সমাজের প্রতিনিধি, পরিবহন মালিক-শ্রমিক, জঙ্গি বিরোধী প্রতিরোধ কমিটির সদস্য, কমিউনিটি পুলিশিং কমিটির সদস্য, চৌকিদার-দফাদার, ব্যবসায়ীসহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।