• আজ শুক্রবার, ৭ মাঘ, ১৪২৮ ৷ ২১ জানুয়ারি, ২০২২ ৷

বাংলাদেশ থেকে আরও পুরুষ কর্মী নেবে লেবানন


❏ শনিবার, আগস্ট ১৩, ২০১৬ জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বরঃ বাংলাদেশি প্রবাসী শ্রমিকদের কাজে মুগ্ধ লেবানন। এ জন্য বাংলাদেশি শ্রমিকদের বেতন বাড়ানোর পাশাপাশি নারী কর্মীর পাশাপাশি আরও পুরুষ কর্মী নেবে লেবানন সরকার। বৃহস্পতিবার লেবাননের শ্রম মন্ত্রণালয়ের সভা কক্ষে বাংলাদেশের প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি’র সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠককালে দেশটির শ্রমমন্ত্রী সিজান আজ্জি এ কথা জানান।

সিজান আজ্জি বলেন, বাংলাদেশি কর্মীদের জন্য সে দেশের আইন অনুযায়ী ধার্যকৃত বেতন নিশ্চিত করা হবে।

অভিবাসন ব্যয় কমানো, দ্রুত কর্মী প্রেরণ প্রক্রিয়া নিশ্চিতকরণ, মধ্যস্বত্বভোগীর দৌরাত্ম্য বন্ধ করাসহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে বাংলাদেশের সঙ্গে একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরেও তিনি সম্মত হয়েছেন।

শুক্রবার ঢাকায় প্রাপ্ত এক বার্তায় জানানো হয়, বৈঠকে লেবাননের শ্রমমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশি কর্মীরা দক্ষতার সঙ্গে কাজ করছে। লেবাননের জনগণ বাংলাদেশি কর্মীদের পছন্দ করে।

lebanonবৈঠকে মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বলেন, বাংলাদেশি কর্মীদের প্রশিক্ষণের মাধ্যমে দক্ষ করে গড়ে তোলা হচ্ছে।

বাংলাদেশ থেকে নির্মাণ কর্মী, ডাক্তার, নার্স, ইঞ্জিনিয়ার, ইলেকট্রিশিয়ান, সেলসম্যানসহ বিভিন্ন খাতে কর্মী নেওয়া এবং কর্মীদের বেতন বৃদ্ধির বিষয়ে বিবেচনার জন্য লেবাননের শ্রমমন্ত্রীকে অনুরোধ জানান তিনি।

বৈঠক শেষে উভয় পক্ষে উপহার বিনিময় হয়। রাতে প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী নুরুল ইসলামের জন্য নৈশভোজের আয়োজন করেন লেবাননের শ্রমমন্ত্রী। বৈঠক শেষে দুই দেশের মন্ত্রী সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন।

শ্রমমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকের পর প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী নুরুল ইসলাম লেবাননের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নুহাদ মাশনকের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন। এ সময় উভয় পক্ষ নিরাপদ অভিবাসন নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করে।

এর আগে প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী নুরুল ইসলাম লেবাননের বাংলাদেশ দূতাবাস পরিদর্শন করেন। দূতাবাস পরিদর্শনকালে মন্ত্রী বিভিন্ন কার্যক্রম ও সমস্যা সম্পর্কে অবগত হন। তিনি সমস্যাগুলো সমাধানের ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ারও আশ্বাস দেন। দূতাবাস পরিদর্শন শেষে মন্ত্রী লেবাননে জাতিসংঘ নিয়োজিত নৌবাহিনীর জাহাজ বিএনএস আলী হায়দার পরিদর্শন করেন। এ সময় মন্ত্রীকে নৌ-সদস্যরা গার্ড অব অনার প্রদান করেন।