• আজ বুধবার, ১২ মাঘ, ১৪২৮ ৷ ২৬ জানুয়ারি, ২০২২ ৷

নিষেধাজ্ঞা উঠে গেলেও শর্তের জালে আবদ্ধ আশরাফুল


❏ শনিবার, আগস্ট ১৩, ২০১৬ Breaking News, খেলা, স্পট লাইট

স্পোর্টস আপডেট ডেস্ক – আবার ব্যাট হাতে দেখা যাবে আশরাফুলকে। অমিত প্রতিভাধর এ ব্যাটসম্যানের চোখজুড়ানো ব্যাটিং আবার দেখতে পারবেন ক্রিকেটপ্রেমীরা। বিপিএলে ম্যাচ ফিক্সিংয়ের দায়ে তিন বছরের নিষেধাজ্ঞা থেকে আজ মুক্তি মিলছে তার। অবশ্য তার এ মুক্তি কিছু শর্তের জালে আবদ্ধ।

এখনই ঘরোয়া ক্রিকেটে ফিরতে পারবেন টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেকেই সবচেয়ে কম বয়সে সেঞ্চুরির রেকর্ড গড়া আশরাফুল। তবে জাতীয় দল এবং বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) আরো দুই বছর খেলতে পারবেন না আশরাফুল। সেক্ষেত্রে আশরাফুল জাতীয় ক্রিকেট লিগ, ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ এবং বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগে (বিসিএল) খেলতে পারবেন।

স্পট ফিক্সিংয়ে জড়িত থাকায় আশরাফুলকে আট বছরের জন্য নিষিদ্ধ করে বিসিবির বিশেষ ট্রাইব্যুনাল। ২০১৪ সালে আশরাফুলের আপিলের পর নিষেধাজ্ঞা পাঁচ বছরে নামিয়ে আনা হয়। ২০১৩ সালের ১৩ আগস্ট শুরু হয় এই শাস্তি, যার মেয়াদ শেষ হলো এ বছরের ১৩ আগস্ট (দুই বছর স্থগিত নিষেধাজ্ঞা)।

mohammod-ashraful

ঘরোয়া ও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের বাইরে থাকলেও অপ্রতিযোগিতামূলক টুর্নামেন্ট বা লিগে দেশে ও দেশের বাইরে নিয়মিত খেলতেন আশরাফুল। গত মাসে লন্ডনে মাইনর লিগ খেলতে গিয়েছিলেন। আজ রাতে দেশে ফেরার কথা রয়েছে তার।

আশরাফুলের ঘনিষ্ঠসূত্রে জানা গেল, দেশে ফিরে ঘরোয়া ক্রিকেটে ফেরার আবেদন করবেন আশরাফুল। আগামী ২০ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হতে যাওয়া বিসিএলে তার খেলার কোনো সম্ভাবনা নেই। এ সময়ে ফিটনেস নিয়ে কাজ করবেন। বিসিবির সুযোগ-সুবিধা ব্যবহার করার অনুমতি চাইবেন আশরাফুল।

এক নজরে আশরাফুলের স্পট ফিক্সিং

৩১ মে ২০১৩: বিসিবি আশরাফুলের ফিক্সিংয়ে তদন্ত শুরু করে।

৪ জুন ২০১৩ : বিসিবি আশরাফুলকে ক্রিকেটে নিষিদ্ধ করে। সেদিন বিকেলেই আশরাফুল নিজের দোষ স্বীকার করেন।

১৮ জানুয়ারি ২০১৪: বিসিবির বিশেষ ট্র্যাইবুন্যাল কাজ শুরু করে।

২ জুন ২০১৪: যুক্তরাষ্ট্রে টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণ করেন আশরাফুল।

১৮ জুন ২০১৪: বিসিবির ট্র্যাইনব্যুনাল আশরাফুলকে ৮ বছরের জন্য নিষিদ্ধ করে।

২২ জুলাই ২০১৪: নিষেধাজ্ঞার ওপর আশরাফুল আপিল করেন।

২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৪: বিসিবিরি ডিসিপ্লিনারি কমিটি আশরাফুলের নিষেধাজ্ঞা পাঁচ বছরে নামিয়ে আনে।

২১ অক্টোবর ২০১৪: বিসিবি আইসিসির কাছে আশরাফুলের নিষেধাজ্ঞা উঠিয়ে নিতে আবেদন করেন, যা আইসিসি ফিরিয়ে দেয়।

১৩ আগস্ট ২০১৬: ঘরোয়া ক্রিকেটে আশরাফুলের নিষেধাজ্ঞা উঠে যায়।