পেশিতে টান খেলে করনীয়


❏ রবিবার, আগস্ট ১৪, ২০১৬ লাইফস্টাইল

লাইফস্টাইল ডেস্ক: অনেকটা সময় পা ভাঁজ করে রাখার পর হঠাৎ করে সোজা করলে, কখনো পায়ের পেশিতে টান লেগে যায়। এটা ঘুমের মাঝে বা জেগে থেকেও হতে পারে। অনেক সময় বেশি পরিশ্রমের কারণে পায়ের পেশিতে এভাবে টান লাগতে পারে। পেশিতে টান লাগা খুবই যন্ত্রণাদায়ক। পা সোজা করতে গেলে ব্যথা আরও বাড়তে থাকে। কিন্তু সহজেই এই যন্ত্রণা থেকে আপনি মুক্তি পেতে পারেন।

pasi

পায়ে টান লাগলে সহজ ও সাধারণ কিছু কায়দা করে খানিকটা আরাম পাওয়া যাবে। যে পেশিতে টান লেগেছে তা টানটান করে তার ওপর আস্তে আস্তে হাত দিয়ে মালিশ করুন। পেশিতে টান লাগলে পা একটু ভাঁজ করে পায়ের ওপর একটা হালকা ওজন দিন। পায়ের পেশিতে টান লাগার পরই হঠাৎ করে পা সোজা করতে যাবেন না। যত কষ্টই লাগুক না কেন ধীরে ধীরে পা ভাঁজ করে আনুন। যে পায়ের পেশিতে টান পড়েছে তার কনিষ্ঠ আঙ্গুল ওপরের দিকে টেনে ধরুন। ব্যাথা কমে যেতে শুরু করবে এবং পেশির টান চলে যাবে। এরপর ধীরে ধীরে পা সোজা করুন।

ধুমপায়ীদের পায়ে রক্ত চলাচল কমে যায় বলে সামান্য হাঁটাহাঁটিতেই পায়ে টান লাগে। একই কারণে ডায়াবেটিক ও কোলেস্টেরলের রোগীদেরও পায়ে ব্যথা হয়। পটাশিয়াম, ক্যালসিয়াম ও ম্যাগনেশিয়ামের ঘাটতি পায়ে টান লাগার জন্য দায়ী। গর্ভাবস্থায় বিভিন্ন স্নায়ুতে চাপ পড়ে বলে পায়ে প্রায়ই টান লাগে।

অনেক সময় দেখা যায় পায়ে টান বা ঝিঁঝি ধরে। তখন একটা চেয়ারে বা মেঝেতে বসে পা দুটোকে সামনে সোজা করে দিন। তারপর পায়ের পাতা হাতের মুঠোয় চেপে ধরে নিজের দিকে টানুন।

শাকসবজি, ফল, দুধ, মাংস এবং খেজুর খান পর্যাপ্ত পরিমাণে। এই খাবারের মধ্যে যথেষ্ট পরিমান পটাশিয়াম, ক্যালসিয়াম ও ম্যাগনেসিয়াম পাওয়া যায়। নেশাগ্রস্ত থাকলে তা বাদ দিতে হবে।