• আজ বুধবার, ১৬ অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ ৷ ১ ডিসেম্বর, ২০২১ ৷

টুঙ্গিপাড়ায় চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী মেজবান আয়োজনের সকল প্রস্তুুতি সম্পন্ন


❏ রবিবার, আগস্ট ১৪, ২০১৬ ঢাকা, দেশের খবর

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি: জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪১তম শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে ৩৮ হাজার লোককের জন্য  গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী মেজবান আয়োজনের সকল প্রস্তুুতি সম্পন্ন হয়েছে।

majbani

টুঙ্গিপাড়া উপজেলার শেখ মুজিবুর রহমান সরকারী ডিগ্রী কলেজ মাঠে মুসলমানদের মধ্যে ও বালাডাঙ্গা স্কুল মাঠে সনাতন ধর্মালম্বীদের জন্য এ মেজবানের আয়োজন করা হবে।

চট্টগ্রামের বিখ্যাত বাবুর্চি আলহাজ্ব মোহাম্মদ হোসেনের নেতৃত্বে বয়, বেয়ারা সহ ২শ ৬০ জনের একটি দল টুঙ্গিপাড়া পৌঁছে মেজবানের আয়োজন শুরু করেছেন। ইতোমধ্যে গরু, মুরগী, চাউলসহ যাবতীয় উপকরণ মজুদ রাখা হয়েছে। বানানো হয়েছে বিশালাকৃতির প্যান্ডেল।

চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক মেয়র এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীর নেতৃত্বে প্রতি বছরের মতো এ বছরও টুঙ্গিপাড়ায় ৩৮ হাজার মানুষের জন্য চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী মেজবানের আয়োজন করা হয়েছে।

আগামীকাল ১৫ আগস্ট সোমবার দুপুর ১২টা থেকে এ মেজবানি শুরু হবে। এ আয়োজনে সহযোগীতা করতে চট্টগ্রাম থেকে যুবলীগ, ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা টুঙ্গিপাড়ায় আগামীকাল সোমবার পৌঁছাবেন।

মেজবানের প্রধান বাবুর্চী-আলহাজ্ব মোহাম্মদ হোসেন জানান, মুসলমানদের জন্য গরুর মাংস, গরুর চর্বি দিয়ে রান্না ঢাউল এবং সনাতন ধর্মালম্বীদের জন্য মুগরীর মাংস ও সাদা ভাতের আয়োজন করা হয়েছে।

মহিউদ্দিন চৌধুরীর একান্ত সচিব মোঃ ওসমান গনি জানান, মেজবান সম্পন্ন করতে গরু, মুরগী, চাউল সহ যাবতীয় উপকরণ মজুদ রাখা হয়েছে। বানানো হয়েছে বিশালাকৃতির তিনটি প্যান্ডেল। বিষয়টি আগেই প্রাধানমন্ত্রীর দপ্তরকে অবহিত করা হয়েছে। ওই দপ্তর থেকে ইতোমধ্যে এ ব্যাপারে দিক নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীর নেতৃত্বে প্রতি বছরই টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধি সৌধের বেদিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ শেষে মেজবানির খাওয়া-দাওয়া শুরু হয়।