দিনাজপুর পূণর্ভবা ও আত্রাই নদীতে ৬ মাসে ৯ শিক্ষার্থী হারিয়েছে প্রাণ !

❏ সোমবার, আগস্ট ১৫, ২০১৬ অকালমৃত্যু প্রতিদিন, দেশের খবর, স্পট লাইট

৬ মাসে ৯ শিক্ষার্থী হারিয়েছে প্রাণ !

শাহ্ আলম শাহী,স্টাফ রিপোর্টার,দিনাজপুর থেকেঃ দিনাজপুর পূণর্ভবা ও আত্রাই নদীতে গত ৬ মাসে ৯ জন শিক্ষার্থী প্রাণ হারিয়েছে। এই নদী দু’টো এখন মানুষ খেকোতে পরিনত হয়ছে।

গত ১৯ এপ্রিল ২০১৬ দিনাজপুর শহরের বাঙ্গিবেঁচার ঘাট নামক স্থানে অবৈধ বালু ড্রেজার কুঁপে পড়ে প্রাণ হারান দিনাজপুর চেহেলগাজী শিক্ষা নিকেতনের ৮ম শ্রেণী’র ছাত্র নাদিম ওরফে কালু (১৪), দিনাজপুর একাডেমী উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এস.এস.সি’র পরীক্ষার্থী রাজ (১৬) ও পুলিশ লাইন উচ্চ বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণী’র ছাত্র এস.এম সিরাজউদ্দীন নয়ন (১৫)। এরপর আত্রাই নদীতে দেশের সর্ববৃহৎ রাবার ড্যাম মোহনপুর ব্রিজ এলাকায় পবিত্র ঈদুল ফিতরের দিনে ঈদ আনন্দ উদযাপন করতে রাবার ড্যামের কাছে গোসল করতে নেমে নবাবগঞ্জ উপজেলার জয়পুর হাই স্কুলের নবম শ্রেণী’র শিক্ষার্থী ও জয়পুরের সাইফুল ইসলামের ছেলে সজীব হোসেন(১৮) প্রান হারায়। মৃত্যুর মিছিল যেন চলছেই।

গত ৮ আগষ্ট ২০১৬ মোহনপুরে দেশের সর্ববৃহৎ রাবার ড্যামে গোসল করতে নেমে দিনাজপুর হলিল্যান্ড কলেজের দ্বাদশ শ্রেণী’র মেধাবী শিক্ষার্থী দিনাজপুর শহরের ক্ষেত্রীপাড়া এলাকার সাইদুল আলমের ছেলে সাজিদ হোসেন সাদ (১৮) ও মুন্সিপাড়া এলাকার মির্জা মমতাজুল ইসলামের ছেলে মির্জা সাকিল শামীম বিশাল (১৭) মৃত্যু বরণ করেন। এর রেশ কাটতে না কাটতেই শোকাহত দিনাজপুরে ৫ দিনের মাথায় আবার নদীতে ডুবে ৩ শিক্ষার্থী প্রান হারিয়েছে।

dinajpur1.

১৩ আগষ্ট ২০১৬ পূনর্ভবা নদীতে কাঞ্চন সড়ক সেতু’র দক্ষিণ পাশে নিউ কাঞ্চন মডেল কলেজের সামনে গোসল করতে নেমে প্রাণ হারান দিনাজপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের এসএসসি পরীক্ষার্থী ও বালুয়াডাঙ্গা এলাকার আহসানুল হক চৌধুরীর ছেলে মেহেদী হাসান পলাশ (১৭), দিনাজপুর সিটি কলেজের উচ্চ মাধ্যমিক প্রথম বর্ষের ছাত্র ও পাহাড়পুর এলাকার আবু তাহেরের ছেলে মাসুদ আব্দুল্লাহ (১৮) ও দিনাজপুর জিলা স্কুলের ৯ম শ্রেণির ছাত্র ও পাহাড়পুর এলাকার মোজ্জামেল হকের ছেলে আবিদ বিন তূর্য(১৫)।

ছয়মাসে ৯ প্রাণ ! নয়টি তরুণ! নয়জন মেধাবী শিক্ষার্থী! নয়টি পরিবারের হাহাকার! আর কত প্রাণ ঝরলে আমরা সচেতন হব? আর কত প্রাণ ঝরলে অবৈধ বালুর ড্রেজারে নদীর বুকে মৃত্যু কুঁপ বন্ধ হবে? আর কত প্রাণ ঝরলে আমাদের প্রশাসন নড়ে চড়ে বসবে? অবৈধ বালুর ড্রেজারে বন্ধ হবে এমন জিজ্ঞাসা সচেতন মহলের।